টি-টোয়েন্টিতেও ‘রিটায়ার্ড-আউট’!

আমাদের নতুন সময় : 04/07/2015

নিজস্ব প্রতিবেদক : কুইন্টন ডি কক-ডি ভিলিয়ার্স সাজঘরে ফিরলেন ‘রিটায়ার্ড আউট’ হয়ে। ফতুল্লায় প্রস্তুতি ম্যাচে বিসিবি একাদশের দেওয়া ১০০ রানের লক্ষ্য দেখে কি মুচকি হেসেছিলেন এবি ডি ভিলিয়ার্স? এ রান টপকাতে তো তাদের দুই ওপেনারই যথেষ্ট! তাহলে বাকি ব্যাটসম্যানরা ঝালিয়ে নেবেন কীভাবে?

একটা উপায় বের করা হলো। ডি ভিলিয়ার্স-কুইন্টন ডি কক ওপেনিং জুটিতে ৪২ বলে ৬৪ রান তুলে সাজঘরে ফিরে গেলেন। দুজনের নামের পাশে লেখা হলো ‘রিটায়ার্ড আউট’। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে এমন রিটায়ার্ড আউটের নজির নেই। তবে প্রস্তুতি ম্যাচে আছে কিনা বলা মুশকিল। থাকলেও সেটা খুব বেশি হওয়ার কথা নয়।
রিটায়ার্ড আউট হওয়ার আগে ডি ককের ব্যাট থেকে এসেছে ২৪ বলে ৩৫ রান ও ডি ভিলিয়ার্স করেছেন ১৯ বলে ২৫ রান। অবিচ্ছিন্ন তৃতীয় উইকেট জুটি ৩৭ রান তুলে খেলার সমাপ্তি টেনেছেন জেপি ডুমিনি ও ডেভিড মিলার। স্কোরকার্ড বলছে বিসিবি একাদশ হেরেছে ৮ উইকেটে। আরেক অর্থে পরাজয়ের ব্যবধানটা ১০ উইকেটই বলতে হবে।
ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত সংস্করণের এ প্রস্তুতি ম্যাচে বিসিবি একাদশের বিপক্ষে ভালোভাবেই ঝালিয়ে নিয়েছেন প্রোটিয়া বোলাররা। দক্ষিণ আফ্রিকার বোলারদের তোপে ৯৯ রানেই গুটিয়ে গিয়েছে বিসিবি একাদশ। নয়জন বোলার হাত ঘুরিয়েছেন ম্যাচে। টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই ধুঁকতে থাকে বিসিবি একাদশের ব্যাটসম্যানরা। কাইল অ্যাবটের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন দুই ওপেনার রনি তালুকদার ও এনামুল হক। সৈকত আলীকে নিয়ে তৃতীয় উইকেটে অধিনায়ক ইমরুল কায়েস কিছুটা চেষ্টা চালান। এ জুটিতে আসে ২৬ রান। অ্যারন ফাঙ্গিসোর বলে বোল্ড হওয়ার আগে সৈকত করেন মাত্র ৫ রান। চতুর্থ উইকেট জুটিতে শুভাগত হোমকে নিয়ে আরেকটা জুটি গড়ার চেষ্টা করেন ইমরুল। এ জুটিতে আসে ২৬ রান।
এরপর আবারও বিপর্যয় ৭ রানের ব্যবধানে ৩ উইকেটের পতন। ডেভিড ভিসের বলে ফেরার আগে ইমরুলের ব্যাট থেকে এসেছে সর্বোচ্চ ২৯ রান। সপ্তম উইকেটে মাহমুদুল হাসান ও সোহাগ গাজীর ১৭ রানই যা একটু প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিল। তবে শেষ ১৭ রানেই অবশিষ্ট ৪ উইকেট পতনে সংগ্রহটা মোটেও পর্যাপ্ত হয়নি বিসিবি একাদশের।
প্রোটিয়াদের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩ উইকেটে নিয়েছেন ডানহাতি পেসার ভিসে। এছাড়া ২টি করে উইকেট পেয়েছেন অ্যাবট ও ফাঙ্গিসো। বিসিবি একাদশের ছয় উইকেট নিয়েছেন প্রোটিয়া পেসাররা। বাকি চারটি স্পিনারদের দখলে। বিসিবি একাদশের পাঁচ ব্যাটসম্যান ফিরেছেন বোল্ড হয়ে।
অবশ্য এটা কেবলই প্রস্তুতি ম্যাচ। এ একাদশের সোহাগ গাজী বাদে কেউ নেই জাতীয় দলের স্কোয়াডে। অতি আতঙ্কের যেমন কিছু নেই, আবার হালকাভাবে নেওয়ারও উপায় নেই।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]