রাজধানীতে ঈদকে ঘিরে ভিক্ষুকের উপদ্রপ

আমাদের নতুন সময় : 04/07/2015

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঈদকে সামনে রেখে রাজধানীতে বেড়ে গেছে ভিক্ষুকের সংখ্যা। প্রতি বছর ঈদ সামনে রেখে এমন অবস্থা সৃষ্টি হয়, যার ব্যতিক্রম হয়নি এবারও।

মুগদায় কথা হয় ডানহাতবিহীন ভিক্ষুক আমজাদের সঙ্গে। তিনি এসেছেন ময়মনসিংহের গফরগাঁও থেকে। এ প্রতিবেদকের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘কী করাম, কাম করনের জু (শক্তি) না। হারাবছরই মইসিং (ময়মনসিংহ) থাইক্কা বিক্কা (ভিক্ষা) কইরা খাই, ঈদটা আইলেই ঢাকা আই। বেশিটেহা পয়সা পাওন যায়।’
এমন বক্তব্য শুধু আমজাদের নয়। নগদ অর্থের পাশপাশি অনেকের প্রত্যাশা থাকে যাকাতের কাপড়-চোপড়। কমলাপুর রেলস্টেশনে কথা হচ্ছিল ময়মনসিংহের ত্রিশালের মালেকার সঙ্গে। তিনি ঢাকায় এসেছেন ফিতরার অর্থ ও যাকাতের কাপড়ের আশা নিয়ে।
মালেকা বলেন, ‘গতবারও ৫টা কাপর পাইছলাম। পুরাডা বছর পরতাছি।’ ফিতরার অর্থ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ভালই পাইছিলাম গতবার, গেরামে থাললে (থাকলে) ইতা (এসব) পাওন যায় না। কেডায় দিব? আমরার গেরামে হগলের অবস্থাই এক জাত (রকম)।’
রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এমনও ভিক্ষুক পাওয়া গেছে, যারা প্রতিদিন গ্রাম থেকে ঢাকায় এসে আবার ফেরেন গ্রামে। তারা ময়মনসিংহ, গাজীপুর, নরসিংদী, কিশোরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, ভৈরবের।
শুক্রবার পান্থপথের একটি মসজিদের সামনে কথা হয় কিশোরগঞ্জের আবদুল্লাহপুর গ্রামের ইবরাহিমের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘সারাবছরই কিশোরগঞ্জ রেলস্টেশনে ভিক্কা (ভিক্ষা) করি। ওই ঈদটা আইলেই ট্রেনে কইরা সক্কাল সক্কাল ডাহা আই, হাইনঞ্জা (সন্ধ্যা) বালা (বেলা) যাই। ট্রেন ভাড়া লাগে না।’




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]