এখন কোন দিকে যাবে গ্রিস!

আমাদের নতুন সময় : 06/07/2015

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : দাতাদের কঠোর কৃচ্ছ্রতার শর্ত মেনে আন্তর্জাতিক ঋণ অথবা তা প্রত্যাখ্যানের মাধ্যমে ইউরোজোন থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঝুঁকিÑ এ দুয়ের মধ্যে একটিকে বেছে নিতে গণভোটে অংশ নিচ্ছেন গ্রিসের নাগরিকরা। রোববার স্থানীয় সময় সকাল ৭টায় (আন্তর্জাতিক সময় ০৪০০) এই ভোটগ্রহণ শুরু হয়, চলে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত। বিডিনিউজ

বন্ধ হয়ে যাওয়া ব্যাংক ও অর্থনৈতিক বিশৃঙ্খলার হুমকির মুখে এ গণভোট অনুষ্ঠিত হলো। ঋণদাতাদের প্রস্তাব গ্রহণ করবেন না প্রত্যাখ্যান করবেন তা নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত হয়ে আছেন গ্রিসবাসী। প্রধানমন্ত্রী অ্যালেক্সি সিপ্রাস ঋণদাতাদের দেওয়া প্রস্তাবকে ‘অপমানজনক’ আখ্যায়িত করে তা প্রত্যাখ্যান করার জন্য জনগণের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। গণভোটের শেষ প্রচারণা সমাবেশে হাজার হাজার গ্রিসবাসীর উপস্থিতিতে ‘না’ ভোট দেওয়ার আহবান জানিয়ে সিপ্রাস বলেছেন, ‘আমাদের উচিত রোববার বিশ্বের কাছে গণতন্ত্রের ও আÍসম্মানের বার্তা পাঠানো।’
অপরদিকে ইউরোপীয় বিনিয়োগকারী ও নীতি নির্ধারকরা বলছেন, প্রস্তাবের প্রত্যাখ্যান গ্রিসকে একক মুদ্রা ইউরো থেকে বের হয়ে যাওয়ার পথে নিয়ে যাবে, এতে বিশ্ব অর্থনীতি ও পুঁজি বাজার অস্থিতিশীল হয়ে পড়বে। এমনকি সেরা সময়েও যেকোনো দেশের মানুষই কর বাড়ানো ও পেনশনে কাটছাঁটের প্রস্তাবের বিরোধিতা করে। এর মধ্যে গ্রিসের মানুষ গত পাঁচ বছর ধরে কঠোর ব্যয় সংকোচনের মধ্যে থেকে ক্ষুব্ধ ও হতাশ হয়ে পড়েছে। এর মধ্যে দেশের আর্থিক খাতকে বাঁচাতে সপ্তাহজুড়ে পুঁজি নিয়ন্ত্রণের বিধান চালু করা হয়েছে।
এ পরিস্থিতিতেই তারা দাতাদের শর্ত অনুযায়ী আরো ব্যয় সংকোচন প্রস্তাবের পক্ষে, না বিপক্ষে ভোট দেবেÑ সে প্রশ্নের মুখোমুখি হয়েছে। এ প্রশ্নে গ্রিসের নাগরিকরা বিভক্ত হয়ে পড়েছেন, তারা ভীত- আগে এমনটি কখনই দেখা যায়নি। শুক্রবার প্রকাশিত গণভোটপূর্ব চারটি জরিপে ‘হ্যাঁ’ ভোটের পক্ষে জনমত কিছুটা এগিয়ে আছে বলে দেখা গেছে। অন্য একটি জরিপের ফলে ‘না’ পক্ষ দশমিক পাঁচ পয়েন্টে এগিয়ে আছে বলে প্রকাশ পেয়েছে। ‘হ্যাঁ’ পক্ষের সমর্থকদের ধারণা দাতাদের প্রস্তাব মেনে না নিয়ে ব্যাংক ব্যবস্থার পতনের মধ্যদিয়ে পুরনো ড্রাকমা মুদ্রায় ফিরে যাওয়া তাদের আরো বেশি বিপর্যয়ের মুখে ঠেলে দেবে।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : info@amadernotunshomoy.com