• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » গাফফার চৌধুরীর নাগরিকত্ব বাতিল করতে হবে বিএনপি হেফাজতসহ ৫ দল


গাফফার চৌধুরীর নাগরিকত্ব বাতিল করতে হবে বিএনপি হেফাজতসহ ৫ দল

আমাদের নতুন সময় : 06/07/2015

রফিক আহমেদ : বিএনপি, জামায়াত ও হেফাজতসহ ৫টি দলের নেতারা প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত বলেছেন, কলামিস্ট আব্দুল গাফফার চৌধুরীর নাগরিকত্ব বাতিল, নিঃশর্ত ক্ষমা, বিচারের মুখোমুখি করা ও তাকে দেশে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না।
রোববার গণমাধ্যমে পাঠানো পৃথক পৃথক বিবৃতি ও সভায় বিভিন্ন দলের নেতারা এ কথা জানান।
বিএনপি’র মুখপাত্র ড. আসাদুজ্জামান রিপন ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে কলামিস্ট আবদুল গাফফার চৌধুরীর দেওয়া বক্তব্যে সরকারের ইন্ধন থাকতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন ।
তিনি বলেন, গাফফার চৌধুরী যুক্তরাষ্ট্রে এক অনুষ্ঠানে আল্লাহ তায়ালার নাম নিয়ে যে বিরূপ মন্তব্য করেছেন, তা মানুষের ধর্মীয় অনূভূতিতে আঘাত করেছে। সরকারের মদদেই তিনি এসব বলেছেন কিনা দেখতে হবে। তিনি সাবেক মন্ত্রী লতিফ সিদ্দিকীর মতো গাফফার চৌধুরীকেও বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান।
হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব আল্লাম জুনাইদ বাবুনগরী ও সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন,
গত ৩ জুলাই আব্দুল গাফফার চৌধুরী নিউইয়র্কে বাংলাদেশের স্থায়ী মিশনের এক অনুষ্ঠানে আল্লাহর গুণবাচক ৯৯ নাম ও কয়েকজন সম্মানিত সাহাবীকে নিয়ে যে তামাশা ও জঘন্য উক্তি করেছেন তার ফলে তিনি ইসলাম থেকে খারিজ হয়ে মুরতাদ হয়ে গেছেন। তওবা করে পুনরায় ইসলাম গ্রহণ করা ছাড়া তিনি মুসলমান পরিচয় বহন করতে পারেন না। আমরা সরকারের কাছে বলতে চাই তার নাগরিকত্ব বাতিল করা হোক এবং তাকে যেনো কোনোভাবেই বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না দেওয়া হয়।
নিউইয়র্কে ইসলাম নিয়ে কলামিষ্ট আবদুল গাফফার চৌধুরীর বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে জামায়াতের নায়েবে আমির অধ্যাপক মুজিবুর রহমান ।
তিনি ইসলাম বিরোধী বক্তব্য প্রত্যাহার করে গাফফার চৌধুরীকে আল্লাহর কাছে তওবা এবং মুসলমানদের কছে নিঃশর্তভাবে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছে।
ইসলাম বিদ্বেষী আব্দুল গাফফার চৌধুরীকে দেশে এনে বিচারের মুখোমুখি করার দাবি জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলনের আমির ও চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম। জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটে রোববার বাদ জোহর বিক্ষোভ মিছিলের আগে এক সমাবেশে তিনি এ দাবি জানান।
আব্দুল গাফ্ফার চৌধুরীর বক্তব্যের দায় সরকার এড়াতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন খেলাফত মজলিস নেতারা। রোববার খেলাফত মজলিসের আমির অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক ও মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের এ মন্তব্য করেন।
নেতারা বলেন, এ রকম নাস্তিক্যবাদী বক্তব্য প্রদানের পরও জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন তাকে সম্মাননা দিয়ে প্রমাণ করেছে যে, তারা এহেন নাস্তিক্যবাদী বক্তব্যের জন্যেই তাকে পুরস্কৃত করেছে।
উল্লেখ্য, ৩ জুলাই বিকেলে নিউইয়র্কে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনে এক আলোচনা সভায় গাফফার চৌধুরী আল্লাহর নাম নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করেন বলে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে।

 

 

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]