সুদের হার সিঙ্গেল ডিজিটে আনা দরকার

আমাদের নতুন সময় : 05/06/2018

ড. আবুল বারাকাত

বাজেট হওয়া উচিৎ সম্প্রসারণ, প্রকৃত অঙ্কে আগের চাইতে বেশি হবে টাকার অঙ্কে। এটি যদি মূল্যযুক্ত করা হয়, তার চাইতে অনেক বেশি বাড়বে। বাজেট সম্প্রসারণের কারণ, আমরা যখন স্বল্পউন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে যাবো বলছি, এখান থেকে উন্নয়নশীল দেশ থেকে উন্নত দেশ হবো বলছি, তাহলে সেখানে আমাদের রাষ্ট্রের বাজেট ছোট হলে হবে না। রাষ্ট্রের বাজেট বড় করতে হবে। রাষ্ট্রের বাজেট বড় করা যায়, আর বড় করতে গেলে যেসব খাতে ব্যয় হয়, সেসব ব্যয় এর খাতে ব্যয়ও বাড়বে কিন্তু আয়ও বাড়াতে হবে। অর্থাৎ রাজস্ব আয় থেকে শৃুরু করে রাজস্ব ভূমি পর্যন্ত। বাজেটে আমরা যেটি লক্ষ করি, তা সময়মত এবং মানসম্মত বাস্তবায়ন, যা বড় ধরণের সমস্যা। এই সমস্যা থেকে উত্তরণ হওয়া সম্ভব। সমাধানের অনেক উদাহরণ বলেছিলাম এর আগে। বাজেটের এখানে কর্মসংস্থান বাড়ানো এবং বেকারত্ব হ্রাস, এটি খুবই সিরিয়াস ভাবনার বিষয়। ধরলাম বাজেট বাড়লো এবং প্রবৃদ্ধিও বাড়লো কিন্তু আমাদের কর্মসংস্থান বাড়লো না, তাহলে কোনো লাভ হবে না। যদিও সুপারিশ বলছি, বেসরকারী বিনিয়োগ বাড়াতে হবে এবং এটি বাড়ানোর জন্য অবকাঠামো গতিশীল হতে হবে এবং এর পাশাপাশি ব্যবসায় ব্যয় কমিয়ে আনতে হবে। পুঁজিবাজারের ধ¦স বাজেটে যুক্ত করতে হবে, এর সমস্যাটা শুধু সরবরাহ ঘাটতি-ই-না, এটি চাহিদার বিষয়। আরেকটি বড় বিষয় বন্ড মার্কেট যা বাংলাদেশে নেই। আর্থিক ব্যবস্থা যেটি আছে, সেটি মূলত ব্যাংকিং ব্যবস্থা। ব্যাংক নির্ভর আর্থিক ব্যবস্থা থেকে যদি আমরা শিল্পায়নের কথা ভাবি, তাহলে সুদের হার যেটি প্রধানমন্ত্রী বলেছেন সিঙ্গেল ডিজিটে আনা, এটির ভাবনা ভালো করে ভাবতে হবে। বাজেটে সাধরণত গ্রামীণ প্রান্তিক কৃষি, জীবিকা, গবাদি পশু বীমা থাকে না, এসব জিনিস পরিক্ষামূলক ভাবে চালু করা দরকার।
পরিচিতি : অর্থনীতিবিদ /মতামত গ্রহণ : তাওসিফ মাইমুন/সম্পাদনা :মোহাম্মদ আবদুল অদুদ




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]