প্রধানমন্ত্রীও ছাত্রদের হতাশ করলেন!

আমাদের নতুন সময় : 26/07/2018

তাহমিদ জামান

কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে বিগত কয়েক মাস ধরেই দেশজুড়ে চলছে নানা আলোচনা সমালোনা। তবে মেধাবী ছাত্রসমাজ এবং এ দেশের সাধারন মানুষ এক কথায় কোটা সংস্কারের পক্ষে। সকলেই চায় লেখাপড়া শেষে একটি ভালো সরকারি চাকরি হোক। কিন্তু মেধাবীরা এত পরিশ্রমের পরেও যদি একটা চাকরি না পায় তাহলে বিগত শিক্ষাজিবনের সম্পুর্ন পরিশ্রমই তো বৃথা মনে হয়। একটি ন্যায্য দাবি নিয়ে শান্তিপুর্ন আন্দোলনে নামার পরেও সাধারণ ছাত্রদের উপর নির্বিচারে পৈচাষিক হামলা এবং মামলা দেওয়া হলো। কোন প্রকার সহিংসতা ছাড়াই মামলার জালে ফাসতে হলো কোটা আন্দোলনের নোতাদেরকে। অথচ ছাত্রলীগ প্রকাশে সন্ত্রাসী হামলা করার পরেও তাদের বিরুদ্ধে বিন্দুমাত্র পদক্ষেপ নেওয়া হলো না। তারা রয়ে গেল বিচারের ধরাছোয়ার বাইরে। বরং তাদেরকে আরো উৎসাহিত করা হলো, সাহস দেওয়া হলো। আমরা সাধারণ ছাত্ররা প্রধানমন্ত্রীর উপর আস্থা রেখেছিলাম। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীও আমাদের হতাশ করলেন। সাধারণ ছাত্র সমাজ বসে থাকবে না। দাবী আদায় করেই ছাড়বে।
পরিচিতি : শিক্ষার্থী, সরকারি তিতুমির কলেজ /মতামত গ্রহণ :তাওসিফ মাইমুন /সম্পাদনা : মাহবুবুল ইসলাম




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]