সূর্য-মেঘের আলাপন

আমাদের নতুন সময় : 28/10/2018

মিনু গরেট্টী কোড়াইয়া

 

একমুঠো বৃষ্টির আশায় উন্মুখ দুই চোখ

একসময় মুখ ফিরিয়ে নেয় আকাশ থেকে

অধীর আগ্রহে সবুজ বৃক্ষের শিকড়ে শিকড়ে

মাটি চষে খুঁজে বেড়ায় তৃষ্ণা মেটানোর স্বাদ;

মৃত্যুর প্রলেপ মেখে শুকনো পাতা ঝরে পরে

ফুলের কুঁড়িতে কুঁড়িতে বিষন্নতার ছাপ স্পষ্ট

মাটির উপর জুড়ে কেবল জীবনের হাহাকার

কখন বর্ষা এসে, ঘুচাবে জীবনের ক্লান্তি-অবসাদ।।

 

উঠোন জুড়ে তোলপাড় ঝড়ো বাতাসের শব্দ

প্রখর রৌদ্রে গান ভুলে নিশ্চুপ হয় বিহঙ্গ

ভেজা মাটির গন্ধ পেতে ব্যাকুল বনানী

তীব্র গন্ধ বাতাসে, শুকিয়ে যায় নদীর নির্যাস;

এখনও মাঝি হাল ধরে নদীর কিনারায়

কখন বর্ষা এসে ভেজাবে ঘাসফুল, উপবন

ভাসবে মোহনা, ফেলবে শান্তির নিঃশ্বাস।।

 

পশ্চিম আকাশে আলো নেমে আসে ধীরে

সূর্যমুখির প্রস্ফুটিত রূপও হয় অস্তগামী

ধূলো উড়িয়ে ঘরে ফেরার পালা রাখালের

ছায়াবৃক্ষে আশ্রয় নেয় ভ্রাম্য পথিকের মন;

পরিচ্ছন্ন আকাশ জুড়ে, আলোয় ঝলমল

কোথায় এতটুকুও নেই মেঘের ইঙ্গিত

মনে মনে মেঘে হেলান দেয় ঘুমন্ত চোখ

স্বপ্নে জাগরণ ঘটে, দেখে বর্ষার আগমন।।

 

দুইচোখ জুড়ে নামে বৃষ্টি, জলে থই থই

নিভে রৌদ্রের দাবালন মেঘের দাপটে

উঠুনে খেলা করে ডুবুরি পানকৌড়ি

জলের ঝাপটায় নেচে ওঠে সবুজ বন;

বৃক্ষের শিকড়ে জমে উঠে তৃষ্ণার জল

ক্লান্ত পথিক খুঁজে পায় সুনিবিড় আশ্রয়

দুই চোখ মেলে আকাশ দেখি গূঢ় আশ্বাসে

শুরু হয় সূর্যের সাথে বৃষ্টির আলাপন।।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]