ঘুরে দাঁড়াতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞা, আশাবাদী কোচের 

আমাদের নতুন সময় : 09/11/2018

স্পোর্টস ডেস্ক : বাংলাদেশ যেখানে ওয়ানডে জিম্বাবুয়েকে ধবল ধোলাই করছে। অথচ সেই বাংরাদেশ প্রথম টেস্টে বিবর্ণ, যেটা দেখে হতাশ টাইগার ভক্তরা। বাংলাদেশের অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ তাদের দলের প্রথম টেস্ট খেলা দু:খ প্রকাশ করছেন। এবং তারা মিরপুর টেস্টে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় ব্যক্ত করছেন ।    আগামী রোববার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হবে দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট। ২০০১ সালের পর প্রথমবারের মতো জিম্বাবুয়ের কাছে দেশের মাটিতে সিরিজ হার এড়াতে এই ম্যাচে জয়ের কোনো বিকল্প নেই স্বাগতিকদের।    বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের ঘুরে দাঁড়ানোর প্রথম নজির রোডস দেখেন ওয়েস্ট ইন্ডিজে। দুই টেস্টে উড়ে যাওয়া অতিথিরা জিতে নেয় ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ। প্রধান কোচের বিশ্বাস, এবারও তেমন কিছু করবেন তার শিষ্যরা। “এই ছেলেরা ব্যাপারগুলো ঠিক করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ আর বাংলাদেশের ড্রেসিং রুমের এই ব্যাপারটা আমার খুব ভালো লাগে। ওরা আমাকে বিস্মিত করে চলেছে। ওরা সব সময়ই ঘুরে দাঁড়াচ্ছে।”   “ওরা পরের টেস্টে লড়বে। ওরা ঘুরে দাঁড়াতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। আমরা ঢাকা টেস্টে জয়ের জন্য খেলব। ১৪৩ ও ১৬৯ রানে দুই ইনিংসে অলআউট হয়ে সিলেট টেস্ট ১৫১ রানে হারে বাংলাদেশ। দেশের মাটিতে জিম্বাবুয়ের কাছে ১৭ বছর পর কোনো টেস্ট হারের জন্য পরিকল্পনায় কোনো ভুল দেখেন না প্রধান কোচ।  “প্রথম টেস্টে আমাদের একমাত্র যে ভুল হয়েছে সেটা হল, প্রথম ইনিংসে আমাদের ব্যাটিং। সম্পাদনা: আশরাফ রাসেল

 

 

আমরা টস হেরেছিলাম আর উইকেটে যখন প্রায় কিছুই হচ্ছিল না তখনও ওদের ২৮২ রানে থামাতে পেরেছিলাম। এরপর আমাদের সাড়ে তিনশ থেকে চারশ রান দরকার ছিল। আর সেই রান করতে না পারলে সব সময়ই শেষ ইনিংস খুব কঠিন।”

“আমরা ব্যাটিংয়ে প্রথম ইনিংসে সুযোগ হাতছাড়া করেছিলাম। আমি পরিকল্পনায় কোনো খুঁত দেখি না। আমাদের কৌশলেও কোনো ভুল দেখি না। আমরা স্রেফ আমাদের প্রথম ইনিংসে তালগোল পাকিয়েছি। সম্পাদনা: আশরাফ রাসেল




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : info@amadernotunshomoy.com