মহাশক্তির আদিরূপ জগদ্ধাত্রী

আমাদের নতুন সময় : 24/11/2018

কাকলী মজুমদার

 

অদিতি জগৎ ধারণ করে রয়েছেন এই ভাবটিই পরবর্তীকালের জগদ্ধাত্রীরূপ কল্পনার মূল বলে মনে করা হলেও জগদ্ধাত্রী পূজা আসলে দুর্গা পূজারই নামান্তর। জগদ্ধাত্রী দুর্গার অন্য এক রূপ।

দেবী জগদ্ধাত্রী মহাশক্তির আদিরূপ। ঋগ্বেদের একটি সুক্তে রয়েছে, ঋষি বশিষ্ঠ সূর্য ও বরুণের সঙ্গে আহ্বান করছেন দেবী অদিতিকে। অদিতি জ্যোতির্ময়ী ও অপ্রতিগতা, তিনি চিদরূপিনী; তিনি মা, তিনি অপ্রতিগতা অর্থাৎ তাকে কেউ আঘাত করতে পারে না। এর অর্থ তিনি মহাশক্তি। অদিতি জ্যোতির্ময়ী অর্থে তিনি জগৎধারণ করে আছেন অর্থাৎ জগতের তিনি পালয়িত্রী বা স্থিতিকারিনী শক্তি। দেবী দুর্গাও তাই।

অদিতি জগৎ ধারণ করে রয়েছেন এই ভাবটিই পরবর্তীকালের জগদ্ধাত্রীরূপ কল্পনার মূল বলে মনে করা হলেও জগদ্ধাত্রী পূজা আসলে দুর্গা পূজারই নামান্তর। জগদ্ধাত্রী দুর্গার অন্য এক রূপ।

অবশ্য, জগদ্ধাত্রী পূজা দুর্গাপূজারই নামান্তর বলা হলেও দুটির মধ্যে মূল পার্থক্য হলো, দুর্গাপূজা মহাপূজা এবং পূজার আচার অনুষ্ঠান হয় বৈদিক ও পৌরাণিক মতে। কিন্তু জগদ্ধাত্রী পূজা সে অর্থে মহাপূজা বলা হয় না। কারণ, মহাপূজার অঙ্গ দেবীর মহাস্নান এই পূজাতে হয় না। আর এই পূজাও হয় তন্ত্র মতে। এদিক থেকে বিচার করলে জগদ্ধাত্রী পূজা কিন্তু খুবই মহতী পূজা। যারা দীক্ষিত কেবল তারাই এই পূজা করার অধিকারী। এমনকী ভক্তিভরে ও নিষ্ঠা সহকারে এই পূজা করতে পারলে সিদ্ধিলাভও করা যায়। দেবরাজ ইন্দ্র এই মতে প্রথম পূজা করে সিদ্ধিলাভ করেছিলেন। রামচন্দ্র যেমন দুর্গাপূজা করে অসুররাজ রাবণকে বিনাশ করেছিলেন তেমনই দুর্গার অন্য এক রূপ জগদ্ধাত্রীর আরাধনা করে দেবরাজ ইন্দ্র অসুররাজ বৃত্রাসুরকে বিনাশ করেছিলেন।

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]