নারায়ণগঞ্জে আবারো শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ নিহত ১

আমাদের নতুন সময় : 07/12/2018

নুরুল আজিজ : উৎপাদন মজুরি বৃদ্ধির দাবিতে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা শিল্প নগরী বিসিক এলাকায় আবারো শ্রমিক- পুলিশের  মধ্যে কয়েক দফায় সংঘর্ষ হয়েছে।  এসময় পুরো এলাকা রণক্ষেতে পরিণত হয়। সংঘর্ষ চলাকালীন বুলি বেগম (৪০)  নামে এক নারী শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। তবে, কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ। নিহত বুলি এনআর গ্রুপের ৭ তলা ভবনের  ৮ নাম্বার লাইনের হেলপার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।  বুলি বেগমের বাড়ি নাটোরে।

পুলিশ ও বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা জানান, উৎপাদন মজুরি বৃদ্ধির দাবিতে এন আর গ্রুপের শ্রমিকরা সকাল দশটায় কর্মবিরতি দিয়ে নারায়ণগঞ্জ-মুন্সিগঞ্জ সড়কে অবস্থান নেয়। এসময় শ্রমিকরা রাস্তায় গাছের গুঁড়ি ফেলে আগুন দিয়ে  বিক্ষোভ পালন করে। খবর পেয়ে ফতুল্লা থানা পুলিশ ও শিল্প পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শ্রমিকদের রাস্তা থেকে সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে শ্রমিকরা পুলিশের উপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ শুরু করে। এতে এক পর্যায়ে শ্রমিক-পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষ ও কয়েক দফায় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়। এসময় ২০ পুলিশ সদস্যসহ অন্তত অর্ধশত শ্রমিক আহত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ কয়েক রাউন্ড টিয়ার সেল ও শর্টগানের গুলি ছোঁড়ে। সংঘর্ষের কারণে বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত একঘন্টা নারায়ণগঞ্জ-মুন্সিগঞ্জ সড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকে। পরে স্থানীয় সংসদ সদস্য শামীম ওসমান ঘটনাস্থলে গিয়ে কারখানা মালিকদের সাথে কথা বলে শ্রমিকদের দাবি পূরণের আশ্বাস দিলে শ্রমিকরা শান্ত হয়। দুপুর ১টার দিকে যান চলাচল শুরু হয়। সম্পাদনা : আদনান

ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এস এম মঞ্জুর কাদের দাবি করেন, পুলিশ কারো উপর হামলা করেনি। বরং শ্রমিকরা পুলিশের উপর হামলা করেছে। পুলিশ তাদের শান্ত করার চেষ্টা করেছে। নারী শ্রমিক নিহত হওয়ার ব্যাপারে তিনি বলেন, সংঘর্ষ চলাকালে ভয়ে ও আতংকে হার্ট এ্যাটাক করে তার মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে বলে জানান তিনি। সম্পাদনা : আদনান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]