‘শেখ হাসিনা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে’র কাগজপত্র বুঝে পেলো বিসিবি

আমাদের নতুন সময় : 10/01/2019

আক্তারুজ্জামান : পূর্বাচলের বহুল প্রতিক্ষিত ক্রিকেট স্টেডিয়ামটি আশার মুখ দেখতে শুরু করেছে। রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) কাছ থেকে ৩৭ একর জমি দলিলপত্র বুঝে পেয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। মোট ২২৫০ কাঠা জমি যার মূল্য প্রায় ১৪ কোটি টাকা, সেটা মাত্র ১০ লক্ষ টাকা প্রতীকী মূল্যে পেয়েছে ক্রিকেট বোর্ড। এখানেই নির্মাণ হবে বিশ্বের সর্ববৃহৎ স্টেডিয়ামগুলোর মধ্যে স্থান করে নেওয়া একটি স্টেডিয়াম। গতকাল রাজউকের তরফে এই তথ্য নিশ্চিত করেছে একাত্তর টেলিভিশন।

আগামী দুই বছরের মধ্যে পূর্বাচলে স্টেডিয়াম নির্মাণ করে ২০২১ সালের টি- টোয়েন্টি বিশ্ব আসরের যৌথ আয়োজক হতে চায় বাংলাদেশ। ৮০০ কোটি টাকা ব্যয়ে বিশ্বের অত্যাধুনিক এই স্টেডিয়াম নির্মাণের মহাপরিকল্পনা রয়েছে বিসিবি’র। পূর্বাচলে স্টেডিয়াম নির্মাণ হবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে। এ নিয়ে বড় পরিকল্পনা ক্রিকেট বোর্ডের। কিন্তু জমি নিয়ে বেশ জটিলতা ছিল। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহায়তায় বেশ দ্রুতই জমি হাতে পেয়েছে বিসিবি। এবার মেলবোর্ন স্টেডিয়ামে স্বাদ পাওয়া যাবে দেশে বসেই।

গত বছরের মে মাসে বিসিবি থেকে জানানো হয়েছিল ওই ৩৭ একর জমিতে ৮০ হাজার থেকে ১ লাখ আসন রাখা হবে। আর এই স্টেডিয়ামটি হবে বিশ্বমানের। থাকবে অত্যাধুনিক একাডেমি, জিমনেশিয়াম, সুইমিংপুল, ইনডোর ও আউটডোর মাঠ। এছাড়াও অতিথি দলের নিরাপত্তা আর যানজটের ব্যাপারটি মাথায় রেখে মাঠের পাশেই পাঁচতারকা হোটেলও নির্মাণ করবে বিসিবি।

তাছাড়া সেখানে একটা একাডেমি করার পরিকল্পনা আছে, যেখানে সারা বাংলাদেশ থেকে ছেলে-মেয়েরা এসে প্র্যাকটিস করতে পারে। একলাখ দর্শক ধারণক্ষমতার একটা অত্যাধুনিক স্টেডিয়াম করা হবে, যেখানে আধুনিক সব সুযোগ সুবিধা থাকবে। সেই সঙ্গে বিশ্বের সেরা স্টেডিয়ামগুলোর মধ্যে জায়গা করে নেবে এই শেখ হাসিনা ক্রিকেট স্টেডিয়াম। বিশ্বের সেরা মাঠগুলোতে যেসব সুবিধা দেখা যায় সে রকম সব সুবিধায় পাওয়া যাবে।

 

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]