সিলেটের রোমাঞ্চকর জয়

আমাদের নতুন সময় : 10/01/2019

এল আর বাদল : বিপিএলে এক রোমাঞ্চকর জয় পেলো সিলেট সিক্সার্স। মাত্র ৫ রানে চট্টগ্রাম ভাইকিংসকে হারিয়ে প্রথম জয়ের দেখা পেলো তারা। দলীয় ৬ রানে সিলেটের টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যানের বিদায়। শুরুর এই ধাক্কায় সিলেটবাসীর হতাশ হওয়ারই কথা। দুই মারকুটে লিটন দাস আর সাব্বির রহমান শূন্য হাতেই ফিরে গেলেন। আর নাসির হোসেন রানের খাতা খুলেই ক্রিজে একটু ধীরস্থীর হওয়ার আগেই ব্যক্তিগত ৩ রানে তাবুতে ফিরে গিয়ে দীর্ঘশ্বাস ছাড়লেন।

গতকাল মিরপুর স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিং করতে নেমে এমনই শুরু সিলেট সিক্সার্সের। এখান থেকে দলের হাল ধরেন খুলনার যুবক আফিফ হাসান আর অধিনায়ক অস্ট্রেলিয়ান ডেভিড ওয়ার্নার। এই দুজন মিলে করেন ৭১ রানের জুটি। ২৮ বলে ৪৫ রান করে আফিফের প্রস্থান  হলেও উইকেটে থিতু হয়ে যান ওয়ার্নার। এরপর নিকোলাস পুরানের সঙ্গে করেন ৭০ রানের জুটি। ওয়ার্নার তুলে নেন বিপিএলে নিজের প্রথম অর্ধশতক। সাঝঘরে ফেরার সময় তার নামের পাশে ৪৭ বলে ৫৯ রানের ইনিংস।

নিকোলাস পুরানও রান তোলেন দ্রুত। ৩২ বলে খেলেন ৫২ রানের ইনিংস। সবমিলে সুরমা পাড়ের দলটি ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৬৮ রানের পুঁজি সংগ্রহ করে। চিটাগং ভাইকিংসের হয়ে ৩ উইকেট নেন ফ্রাইলিংক, ১ উইকেট করে নেন নাঈম হাসান আর খালেদ আহমেদ।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১৬৩ রানে গুটিয়ে যায় চট্টগ্রাম ভাইকিংসের ইনিংস। শুরুতেই ব্যক্তিগত ৬ রানের মাথায় তাসকিন আহমেদের বলে বিদায় নেন ভাইকিংস ওপেনার মোহাম্মদ শেহজাদ। এরপর ক্যামেরন দেলপোর্ট আর মোহাম্মদ আশরাফুলের জুটি থেকে আসে ৫৭ রান। দেলপোর্ট করেন ৩৮ আর আশরাফুল ইনিংস লম্বা করার ইঙ্গিত দিয়েও ফেরেন ২২ রান করে। মুশফিক উইকেটে এলেন আর বিদায় নিলেন মাত্র ৫ রান করে।

এরপর সিকান্দার রাজা খেলেন ৩৭ রানের ইনিংস। শেষদিকে রবি ফ্রাইলিংক হারিয়েই দিচ্ছিলেন সিলেটকে। শেষ ওভারে যখন ২৪ রান দরকার ভাইকিংসদের ফ্রাইলিংক তখন ম্যাচ জমিয়ে তুলেছিলেন ২ ওভার বাউন্ডারি হাঁকিয়ে। শেষ বলে লাগে ৭ রান। আল আমিন দেন ১ রান। আর তাতে ৫ রানে আসরের প্রথম জয় পায় সিলেট সিক্সার্স। রবি ফ্রাইলিংক করেন ২৪ বলে ৪৪ রান। সিলেটের হয়ে তাসকিন নেন ৪টি উইকেট। এছাড়া ২ উইকেট নেন অলোক কাপালি। সম্পাদনা : মোহাম্মদ রকিব

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]