ধনীদের বিবাহবিচ্ছেদ

আমাদের নতুন সময় : 11/01/2019

গাজী নাসিরউদ্দিন আহমেদ

এমাজনের মালিক জেফ বেজোস এবং তার স্ত্রী মেককেঞ্জি একে অপরকে তালাক দিয়েছেন। ভালো কথা। মানুষের বিয়ে-তালাক নিয়ে আগ্রহ নেই যার তার জন্যও খবর আছে সেখানে। বেজোস দুনিয়ার সবচেয়ে ধনী লোক। ১৯৯৩ সালে বিয়ের পর বেজোস এমাজন প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। এক চাকরির ইন্টারভিউ নিতে গিয়ে বেজোসের সঙ্গে মেককেঞ্জির প্রেম, পরে বিয়ে। মনে হচ্ছে তারা হ্যাপিলি একে অপরকে ছেড়ে দিয়েছেন। কিন্তু তালাক নিষ্পত্তি কী হ্যাপিলি হবে? যদি না হয় তখন কী হবে। এক নম্বর ধনী বেজোসের সম্পত্তির মূল্য ১৩৭ বিলিয়ন ডলার। তাদের আরো ৫টির মতো বাড়ি আছে। মানে প্রাসাদ। এখন তালাক নিষ্পত্তি যদি আইন মেনে হয় তা হলে আদালত দাম্পত্যকালে বেজোসের অর্জিত সকল সম্পদ দু’জনকে সমান ভাগে ভাগ করে দেবে। সেটা হলে বিশ্বের এক নম্বর ধনী আর তিনি থাকবেন না। নাম নেমে যাবে চার নম্বরে। ওদিকে নারী ধনীদের তালিকার এক নম্বরে চলে আসবে মেককেঞ্জির নাম। উনার পেশা উপন্যাস লেখা। তালাকের বিবৃতিতে দু’জন বলেছেন, সুন্দর সময় কেটেছে তাদের গত পঁচিশ বছর। এমনকি এও বলেছেন, যদি জানতেন ২৫ বছর পর ঘর ভেঙে যাবে তা হলেও তারা বিয়ে করে সংসারীই হতেন। এই খবর পড়ে ইয়াং পোয়েটকে বললাম, মনের দাম কতো? ঘটনা বুঝিয়ে বলাতে সে বললো, পাঁচ লাখ ৮৭ হাজার কোটি টাকা। মানে, বাংলাদেশের দেড় বছরের বাজেট! মন চাইছে বলে বেজোস এতো চড়া জেনেও তালাকে গেছেন। ইয়াং পোয়েট বলে, শালার মনের যে এতো দাম কবিরাই বুঝলো কেবল। কিন্তু দাম গুনলো বড় লোকেরাই! ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]