ধামরাইয়ে সরকারি মাটি কেটে ইট তৈরি, নিরব প্রশাসন

আমাদের নতুন সময় : 11/01/2019

আদনান হোসেন : ঢাকার ধামরাই উপজেলার কুল্লা ইউনিয়নের খাৎরা গ্রামের দক্ষিণ পাশে নদীর পাশে সরকারী জায়গা থেকে অবৈধভাবে রাতের আধারে মাটি কেটে ইট তৈরি অভিযোগ উঠেছে কুল্লা ইউনিয়নের মো. লুৎফর রহমানের বিরুদ্ধে। সরকারী কোন অনুমতি ছাড়াই গত কয়েকদিন ধরে এলাকার মানুষের অজান্ততে রাতের আধারে রাস্তাঘাট নষ্ট করে সরকারী জায়গা থেকে মাটি কেটে ইট ভাটায় নিয়ে যাচ্ছে। ফলে হুমকির মুখে পড়েছে এলাকার রাস্তাঘাট বসতবাড়ী ও ফসলী জমি। এলাকাবাসীর অভিযোগ স্থানীয় প্রশাসনকে জানিয়ে কোন সুরাহা পাননি তারা। বরং যে অভিযোগ করছে তাকে উলল্টো লুৎফরের লোকজন হুমকি দিচ্ছে বলে জানাগেছে।

 

 

এই দিকে ট্রাকদিয়ে মাটি নেওয়ার ফলে এলাকার বাড়ীঘরের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া রাস্তাগুলি প্রচুর পরিমানে ধুলাবালি, রাস্তা ভাংগাচুরা হয়ে যাওয়ার ফলে মানুষ রাস্তাদিয়ে চলাচল করতে পারছে না বলে উপজেলা প্রশাসনের বরাবর অভিযোগ দিয়েও কোন সুফল পাচ্ছে না। ফলে দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে সাধারণ মানুষদের। নাম প্রকাশ না বলার শর্তে তিনি বলেন, আমাগোর এলাকায় মো. লুৎফর কোম্পানী তার প্রভাব খাটিয়ে রাতের আধারে সরকারী জায়গা থেকে মাটি কেটে ইট তৈরি করে টাকার পাহার গড়তেছে। আমরা এলাকার লোকজন তাকে বাধা দিতে গেলে উল্টো মারধরের শিকার হতে হয়। অভিযুক্ত মো. লুৎফর রহমান বলেন, আমি টাকা দিয়ে মাটি কিনেছি। তবে এসিল্যান্ড অফিস থেকে লোক এসে বাধা দিলে আমি আমার বেকু সেখান থেকে সড়িয়ে নিই। এছাড়া আমি সরকারকে ভ্যাটের টাকা দিই, সেই টাকা দিয়ে সরকার রাস্তাঘাটের কাজ করে থাকে। উপজেলা সহাকরী কমিশনার (ভুমি) মো. নাহিদ হাসান বলেন, অভিযোগ তদন্ত করে প্রমাণ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি। সম্পাদনা: বাহাউদ্দিন

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]