বেকারত্ব নিরসনে নতুন শিল্প-কারখানা তৈরি করতে হবে : পাটমন্ত্রী

আমাদের নতুন সময় : 11/01/2019

নুরুল আজিজ : বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী (বীরপ্রতীক) বলেছেন, শিল্প-কারখানা নিয়ে আমার যথেষ্ট অভিজ্ঞতা রয়েছে। জীবনের শুরু থেকেই শিল্প-কারখানা গড়ে তুলে প্রতিষ্ঠিত হয়েছি। সেই অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে বস্ত্র ও পাটশিল্পকে এগিয়ে নিয়ে যাব। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। গোলাম দস্তগীর গাজী বলেন, পাটশিল্প একটি আদি সেক্টর। আমরা স্বাধীনতা যুদ্ধে এই পাটশিল্পের জন্যই গিয়েছিলাম। আমাদের পাট এদেশ থেকে লাভ করে তাদের দেশে নিয়ে যেতো। তাই অর্থনৈতিক বৈষম্যের কারণে বঙ্গবন্ধুর ছয় দফা দাবি নিয়ে মুক্তিযুদ্ধে গিয়েছিলাম আমরা। বস্ত্র দিয়ে আমরা পৃথিবীর মধ্যে সুনাম অর্জন করেছি। এ দুটি সেক্টর অর্থনৈতিক সেক্টর। দুটি সেক্টরকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হলে অর্থনৈতিকভাবেই এগিয়ে নিতে হবে। কর্মক্ষেত্র তৈরি করতে হলে বস্ত্র ও পাটশিল্পে আরও বেশি অবদান রাখতে হবে। বেকারত্ব নিরসনে নতুন নতুন শিল্প-কারখানা তৈরি করতে হবে। বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের বিষয়ে বীরপ্রতীক গোলাম দস্তগীর বলেন, ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি আমরা টগবগে যুবক ছিলাম। আমাদের হাতে তখন অস্ত্র ছিল। বঙ্গবন্ধু যখন দেশে ফেরেন তখন আমরা আনন্দে উৎসাহিত হই। আমাদের একটি স্বাধীন দেশ হিসেবে উপহার দিয়েছেন তিনি। তিনি ফিরে না আসলে আমাদের কি হতো। এখন আমরা বঙ্গবন্ধু শূন্যতায় ভুগছি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ শাহজাহান ভুইয়া, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবুল ফাতে মোহাম্মদ সফিকুল ইসলাম, রূপগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল হক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন মোল্লা ও দফতর সম্পাদক আব্দুল আজিজ প্রমুখ। সম্পাদনা: বাহাউদ্দিন




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]