বিতর্ক এড়াতে নির্বাচনের আগে ‘পদ্মশ্রী’ ফেরালেন সাহিত্যিক গীতা মেহতা

আমাদের নতুন সময় : 27/01/2019

প্রিয়াংকা আচার্য্য : ভারতের রাষ্ট্রীয় সম্মান ফেরালেন বিজু পট্টনায়ক কন্যা ও প্রখ্যাত সাহিত্যিক গীতা মেহতা। শুক্রবার তাকে পদ্মশ্রী সম্মান দেওয়ার ঘোষণা করা হয়। মাত্র কয়েকঘণ্টার মধ্যেই নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দিলেন গীতা মেহতা। সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন (ভারত)
নিউ ইয়র্ক থেকে বিবৃতি দিয়ে বললেন, ‘সরকার পদ্মশ্রীর মতো সম্মানের জন্য আমার নাম ভেবেছে, এর জন্য খুবই সম্মানিত। কিন্তু গভীর অনুশোচনার সঙ্গে জানাচ্ছি যে এই মুহূর্তে অর্থাৎ লোকসভা নির্বাচনের আগে পদ্মশ্রী সম্মান গ্রহণ করা সম্ভব নয়। এতে মানুষের কাছে ভুল বার্তা যেতে পারে। যা আমার পক্ষে এবং সরকারের পক্ষে একেবারেই কাম্য নয়।’
বিজেডি প্রতিষ্ঠাতা বিজু পট্টনায়কের কন্যা গীতা সম্পর্কে উড়িশ্যার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়কের বড় বোন। নিউ ইয়র্ক নিবাসী গীতার স্বামী বিখ্যাত প্রকাশক সনি মেহতা। প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার বেস্টসেলার থেকে শুরু করে অন্তত ৬ জন নোবেল পুরস্কারপ্রাপ্ত সাহিত্যিকের বই প্রকাশের রেকর্ড আছে তার ঝুলিতে। সূত্রের খবর, সনি মেহতার সঙ্গে আবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ঘনিষ্ঠতা আছে। মাস ছয়েক আগে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে দিল্লির ঔরঙ্গজেব রোডে নবীন পট্টনায়কের বাড়িতে ফোন করে গীতার সঙ্গে কথা বলতে চাওয়া হয়। বাড়ির পরিচালক জানান, গীতাদেবী দিল্লিতে নয়, নিউ ইয়র্কে থাকেন। এরপর সনি মেহতার মাধ্যমে নিউ ইয়র্কে বসবাসকারী গীতাদেবীর সঙ্গে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী দপ্তরের কর্মকর্তারা। সম্প্রতি মেহতা দম্পতি দেশে আসেন ও এই সম্মানের বিষয়ে ইঙ্গিতও পান। সাধারণতন্ত্র দিবসের আগের দিনই পদ্মশ্রী সম্মানে নাম ঘোষণায় সুনিশ্চিত হয়ে গেল সবটাই। তবে সম্মান গ্রহণে রাজি হলেন না গীতা মেহতা।
প্রসঙ্গত, এর আগেও বিজেপি সরকারের নানা সিদ্ধান্তের বিরোধিতায় সরকারি সম্মান ফিরিয়েছেন একাধিক বিশিষ্টজন। গীতা মেহতা সেই তালিকায় নবম সংযোজন।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]