মোংলায় গির্জায় দূরধর্ষ চুরি

আমাদের নতুন সময় : 27/01/2019

খ্রিস্টীয় দর্পণ ডেস্ক

মোংলার শেহলাবুনিয়ার ক্যাথলিক গির্জায় ও মিশনারী স্কুলে দূরধর্ষ চুরি সংগঠিত হয়েছে । ১০ জানুয়ারী, দিবাগত গভীর রাতে দুর্বৃত্তরা হানা দিয়ে গির্জার সিন্দুক, দান বাক্স, স্কুলের দরজার হ্যাজবোল্ট, আলমারী ভেঙ্গে নগদ টাকার পাশাপাশি মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে গেছে। এছাড়া ধর্মগ্রন্থ, প্রসাদসহ বিভিন্ন আসবাবপত্র তছনছ করে ফেলে রেখে যায়। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে দূরধর্ষ এ চুরির ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানিয়েছেন মোংলা-রামপাল সার্কেলের সহকারী সিনিয়র পুলিশ সুপার মো. খায়রুল আলম। রিগন পাড়ার বাসিন্দা টুটুল বিশ্বাস বলেন, প্রয়াত ফাদার মারিনো রিগন দীর্ঘ ৪০ বছরের ও বেশি সময় শেহলাবুনিয়ার এই মিশন বাড়ী অর্থাৎ ফাদার বাড়ীতে থাকতেন, সেন্ট পলস স্কুল দেখাশুনা করতেন এবং এই ক্যাথলিক গির্জার পুরোহিতও ছিলেন। এই গির্জার সম্মুখেই তাঁকে সমাহিত করা হয়েছে। তারই তত্ত¡বধায়ন ও ব্যবহারকৃত বাড়ী, গির্জা ও স্কুলে যে চুরির ঘটনা ঘটেছে তা অত্যন্ত দুঃখজনক।
মোংলা সেন্ট পলস উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনিন্দ্র হালদার জানান, ১০ জানুয়ারী, দিবাগত রাত ৩টার দিকে দুর্বৃত্তরা তিনতলা বিশিষ্ট স্কুল ভবনের পূর্ব পাশের লোহার গেইটের হ্যাজবোল্ট ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে। এরপর অফিস কক্ষের দরজা ও আলমারীর তালা ভেঙ্গে নগদ ১৪ হাজার টাকা নিয়ে যায়।
মোংলার সেন্ট পলস ক্যাথলিক গির্জার ফাদার সেরাফিন সরকার জানান, একই রাতে গির্জার পিছনের প্রধান দরজার তালা ভেঙ্গে দূর্বৃত্তরা ভিতরে ঢুকে সিন্দুক ও দান বাক্সের তালা ভেঙ্গে টাকা-পয়সা নিয়ে যায়। এ সময় দূর্বৃত্তরা সিন্দুকের মধ্যে থাকা ধর্মীয় গ্রন্থ, প্রসাদসহ মূল্যবান মালামাল তছনছ করে ছড়িয়ে ছিটিয়ে ফেলে রাখে। তবে গির্জা থেকে কি পরিমাণ টাকা খোয়া গেছে তা নিশ্চিতভাবে জানাতে পারেননি পালক পুরোহিত সেরাফিন সরকার।
তবে অভিযোগ দেয়ার বিষয়টি কোন সিদ্ধান্ত এখনও পর্যন্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনিন্দ্র হালদার ও গির্জার ফাদার সেরাফিন সরকার। তারা বলেন, যেহেতু এটি মিশনারী প্রতিষ্ঠান সেহেতু মিশনের দায়িত্বপ্রাপ্তদের সাথে আলোচনা করেই অভিযোগের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।
১১ জানুয়ারী, ভোর রাতে দূরধর্ষ এ চুরির ঘটনাটি জানাজানির পর বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ওই এলাকা পরিদর্শন করেছেন মোংলা-রামপাল সার্কেলের সহকারী সিনিয়র পুলিশ সুপার মো. খায়রুল আলম। এ সময় তিনি বলেন, অভিযোগ পেলেই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। সূত্র : বাগেরহাট টুয়েন্টি ফোর. কম




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]