• প্রচ্ছদ » আজকের পত্রিকা » শবরীমালা নিয়ে ফেসবুক স্ট্যাটাসের জন্য মালয়ালাম পরিচালকের ওপর অজ্ঞাতনামাদের হামলা


শবরীমালা নিয়ে ফেসবুক স্ট্যাটাসের জন্য মালয়ালাম পরিচালকের ওপর অজ্ঞাতনামাদের হামলা

আমাদের নতুন সময় : 27/01/2019

ইমরুল শাহেদ : শবরীমালা মন্দিরে নারীদের প্রবেশ নিয়ে মালয়ালাম চলচ্চিত্রকার প্রিয়ান্দননের ফেসবুকে একটি মন্তব্যের জেরে ভারতের কেরালায় ব্যাপক বিতর্কের সৃষ্টি করেছে। এই বিতর্ককে কেন্দ্র করে কেরালার থ্রিসুর জেলার ভাল্লাচিরায় নিজ বাসভবনের কাছে একটি দোকানে অজ্ঞাতনামা কয়েকজন লোক তার ওপর হামলা চালায়। মাথ্রুভূমি দৈনিকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার সকাল নয়টার দিকে। স্ক্রল.ইন
হিন্দুতভা সংগঠনের নেতারা বলেছেন, প্রিয়ানন্দননের মন্তব্য ছিল ধর্মাবমাননাকর, যদিও তিনি মন্তব্যটি ফেসবুক থেকে মুছে ফেলেছেন। বিজেপি নেতা বি গোপালকৃষ্ণ প্রিয়ানন্দননকে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, সংঘ তাকে এলাকায় স্বাধীনভাবে চলাফেরা করতে দেবে না। মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন এই ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘এ ধরনের ঘটনা বাকস্বাধীনতার ওপর হস্তক্ষেপ। সরকার এ ধরনের কোনো ঘটনাকেই বরদাশত করবে না।’
প্রিয়ান্দনন পরিচালিত পুলিজানমাম শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র হিসেবে ২০০৬ সালে জাতীয় পুরস্কার পেয়েছে। তার অন্যান্য ছবির মধ্যে রয়েছে বকথজানানগালুডে শ্রদাক্কু, নেথুকরণ এবং সুফি পারাঞ্জা কথা।
জাতীয় পুরস্কার পাওয়া এই পরিচালক অভিযোগ করেন, মন্দিরে প্রবেশ করা দুই নারী কনকদুর্গা, বিন্দুর মতো নানারকম হুমকি দেওয়া হচ্ছে তাকেও। শুক্রবার সকাল ন’টা নাগাদ বাড়ি থেকে বেরনোর পর তাকে লক্ষ্য করে গোবর ছুঁড়ে দেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে। পরিচালকের দাবি, এই ঘটনা সঙ্গে আরএসএস নেতৃত্বও জড়িয়ে রয়েছে। তবে পরিচালকের অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছে আরএসএস।
উল্লেখ্য, নিষেধাজ্ঞার অচলায়তন ভেঙে মন্দিরের আয়াপ্পার কাছে পৌঁছে গিয়েছেন মহিলারা। নিয়ম ভাঙাকে কেন্দ্র করে বিতর্কের সূত্রপাত হয়েছে গোটা কেরালায়। আর পাঁচজনের মতো এ বিষয়ে সোশ্যাল সাইটে পোস্ট করেছিলেন জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালক প্রিয়নন্দনন। এটাই ছিল তার ‘অপরাধ’। সম্পাদনা : আলমগীর




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]