মেলায় প্রথম প্রহরে ছিলো শিশুদের কলরব, বিকেলের পর তারুণ্যের উল্লাস

আমাদের নতুন সময় : 10/02/2019

দেবদুলাল মুন্না : গতকাল শনিবার বইমেলার প্রথম দুটি ঘণ্টা ছিলো শিশু প্রহর। বেলা ১১টায় বইমেলায় দুয়ার খুলতেই পুরো শিশুচত্বর এলাকা মুখর হয়ে ওঠে খুদে পাঠকের পদভারে। রূপকথার গল্প, অঙ্ক শেখার মজার কৌশল, ইতিহাস ও সাধারণ জ্ঞানের বই, ভুতের গল্প, শিশুতোষ সায়েন্স ফিকশন ও গোয়েন্দাকাহিনী এসব বিষয়ের ওপর বই খুঁজতে ব্যস্ত ছিলো খুদে পাঠকরা। সাথে অভিভাবকরা তাদের সামাল দিতে ছিলেন ব্যস্ত।

ছুটির সকালে মায়ের হাত ধরে, বাবার কোলে চড়ে নগরের নানা প্রান্ত থেকে ছুটে এলো খুদেদের দল। মেলা প্রাঙ্গণ দাপিয়ে বেড়িয়ে ঝোলা ভর্তি বই নিয়ে তবেই তারা ফিরেছে বাড়ি।

রাজধানীর উত্তরা থেকে তিন বছর বয়সী রোয়েনা মেলায় এসেছিলো বাবা রেহমান কুদ্দুসের সঙ্গে। রেহমান কুদ্দুস বলেন, ‘ওকে বর্ণমালা চেনাতে ছবির বই কিনে দিয়েছি। তাছাড়া বাংলার ষড়ঋতু, গ্রাম, নদীÑচেনা যায় এমন সব ছবির বই কিনে নিয়েছি। সিসিমপুর দেখিয়েছি।’ মিরপুর এলাকার মনিপুর স্কুলের সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী মিথিলা জানাল, বাবা-মা সঙ্গে এলেও বই কেনা হয়েছে তার পছন্দ মতো। আজিমপুর এলাকার উদয়ন স্কুলের শিক্ষার্থী মুক্তা বলে, ‘সিসিমপুরের সব কিছু ভালো। পুরোটাই কিনে নিয়ে যেতে ইচ্ছা করে।’

বইমেলার প্রথম প্রহর শিশুদের ভিড়ে মুখরিত থাকলেও বিকেল হতে না হতেই বাড়তে থাকে ভিড়। বয়স বিবেচনায় তারুণ্যের উপস্থিতিই ছিলো রাত পর্যন্ত বেশি। গতকাল শনিবার  মেলার মূল মঞ্চে বিকেলে অনুষ্ঠিত হয় ‘লেখক অনুবাদক আবদুল হক : জন্মশতবর্ষ শ্রদ্ধাঞ্জলি’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সৈয়দ আজিজুল হক। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন অজয় দাশগুপ্ত, সোহরাব হাসান ও আহমাদ মাযহার। সভাপতিত্ব করেন সুব্রত বড়ুয়া।

জমেছে লেখক বলছি মঞ্চ। বিকেল সোয়া পাঁচটায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের পূর্ব দিকে দেখা গেল দর্শনার্থীদের বড় জমায়েত। এখানে এই প্রথম বানানো হয়েছে ‘লেখক বলছি’ মঞ্চটি। এখানে বাংলা একাডেমির উদ্যোগে প্রতিদিন পাঁচজন লেখককে ২০ মিনিট করে কথা বলার ব্যবস্থা করা হয়েছে। যেদিন লেখক কথা বলবেন তার আগের দিন তাঁর বই জমা দিতে হবে বাংলা একাডেমি কর্তৃপক্ষের কাছে। সেখান থেকে প্রতিদিন পাঁচজনকে নির্বাচন করে দেয়া হয়। সম্পাদনা : রেজাউল আহসান

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]