• প্রচ্ছদ » » নির্বাচিত কলাম নির্বাচিত কলাম নির্বাচিত কলাম নির্বাচিত কলাম নির্বাচিত কলাম


নির্বাচিত কলাম নির্বাচিত কলাম নির্বাচিত কলাম নির্বাচিত কলাম নির্বাচিত কলাম

আমাদের নতুন সময় : 11/02/2019

– ভেতরে মশলাপাতি থাকলে প্রকাশক লেখকের কাছে ছুটে আসবেনই; লেখককে যেতে হবে না। অমন অযোগ্যদের কারণেই প্রতিভাবানরা অতলে তলিয়ে যাচ্ছেন। নিজের যতো টাকায় বই ছাপছেন, ততো টাকা মা-বাবা কিংবা সন্তানের কল্যাণে ব্যয় করলে তারা লাভবান হতেন। – আলম শাইন
– ধর্ষণ নিয়ে আর কিছুই বলতে ইচ্ছে করে না। সবাই বুঝে গেছে, ‘ধর্ষণ’ পুরুষের জন্মগত অধিকার। কেউ এই অধিকার সম্পর্কে সচেতন, কেউ সচেতন নয়। – রিতা রায় মিঠু
– গ্রাম, মফস্বল কিংবা জেলাশহরে বসবাসকারী শিশুদের চেয়ে ঢাকায় বাস করা শিশুরা তুলনামূলক বোকা, স্বার্থপর ও অসামাজিক আচরণের। রাজধানীর বাক্সবন্দি জীবন তাদের আর কী-ই বা দেবে! – প্রীতি ওয়ারেসা
– গালি যেমন ভাষার অবদান, শুভসম্ভাষণও। ভাষার শুধু মুখগহŸর নয় পায়ুপথও আছে। – সংগৃহীত
– সোনালী ব্যাংকের প্রায় সাড়ে ১৮ কোটি টাকা জালিয়াতির অভিযোগে আবু সালেক নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে করা ৩৩টি মামলায় ভুল আসামি হিসেবে ৩ বছর জেল খাটলেন টাঙ্গাইলের জাহালাম। দুদক তো অবশ্যই তার জন্য দায়ী। কিন্তু মিডিয়ার ভ‚মিকা কী এখানে? স্থানীয় সাংবাদিক, আদালত প্রতিবেদক, দুদক বীটের রিপোর্টার- কেউ দেখলোনা বিষয়টা এতোদিন? মিডিয়া তাহলে রাষ্ট্রের, সমাজের কী কাজে লাগছে? প্রেসকে ঋড়ঁৎঃয ঊংঃধঃব অথবা ঋড়ঁৎঃয ঢ়ড়বিৎ হিসেবে আখ্যা দেওয়ার দিন কি শেষ তাহলে, বাংলাদেশে?- আনিস আলমগীর
মিতুকে তার ‘সতা’র জামাই কয়েক দফা পিটিয়ে রক্তাক্ত করে ‘ব্যাভিচারের’ স্বীকারোক্তি নিয়েছিলো। সেই স্বীকারোক্তি খুব খেয়েছে এই ব্যাটা নিয়ন্ত্রিত মোরাল সোসাইটি। এর মধ্যে তার ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন করেছে ‘মোরাল’ ডাক্তার, ‘মোরাল’ উকিল এবং ‘মোরাল’ ফেসবুক সম্প্রদায়। তারপর এই বিশাল জনগোষ্ঠীর দাবির প্রতি সম্মান জানিয়ে পুলিশ ‘ব্যাভিচারিণী’ মিতুকে রিমান্ডে নিয়েছে। সেখানেও নিশ্চয় বিভিন্ন থেরাপির মধ্য দিয়ে কয়েক দফা স্বীকারোক্তি দিতে বাধ্য হয়েছে মেয়েটি।
না, সেসব নিয়ে কোনো প্রশ্ন করার বেয়াদবি আমি করবো না। শুধু মেয়েটি এখন কী অবস্থায় আছে সেটা জানতে চাওয়াটা কী আদবের খুব বেশি বরখেলাফ হয়ে যাবে? কেমন আছে মিতু?-সাদিয়া নাসরিন
বাংলাদেশের মোট আয়তনের শতকরা ৪ ভাগ জমিও আমাদের ‘মা-মেয়েদের’ অধিকারে নেই। হ্যাঁ, ঠিকই শুনেছেন! মাত্র ৪ ভাগ জমিও তাদের অধিকারে নেই। স্বামী গৃহে চলমান নির্যাতন, নিপীড়ন যা সকলের দৃষ্টিকোণের বাহিরে থেকে যায়। আসুন শুধু মুখে নয়? নারী অধিকার প্রতিষ্ঠায় প্রয়োজন মানসিকতারও পরিবর্তন। নারী ও শিশু নির্যাতনের ঘটনা ঘটলে, প্রতিকার ও প্রতিরোধের জন্য ন্যাশনাল হেল্পলাইন সেন্টারে ১০৯ নম্বর-এ (টোল ফ্রি, ১০৯ ২৪ ঘণ্টা সার্ভিস) ফোন করে সরকারি সেবা গ্রহণ করুন। জনস্বার্থে : বাংলাদেশ মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়।-ফেরদৌস আরা রুমী




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]