রাহুল, কোহলি, শাহরুখ, দীপিকা ও কারানদের মোদির টুইট

আমাদের নতুন সময় : 14/03/2019

লিহান লিমা: আগামী লোকসভা নির্বাচন উপলক্ষ্যে রাজনীতিবিদ, খেলোয়াড়, সাংবাদিক, টিভি তারকা থেকে শুরু করে ব্যবসায়ীসহ সব জনপ্রিয় ব্যক্তিত্বদের ট্যাগ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রাহুল গান্ধী থেকে মমতা ব্যানার্জি, ভারতের জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব শচিন টেন্ডুলকার, রতন টাটা, এআর রহমান, পিভি সিন্ধু, রনভির সিংহ, ভিকি খুশাল ও দীপিকা পাডুকোনসহ অনেককেই ট্যাগ করেন তিনি। তিনি সবাইকে আগামী এপ্রিল-মে’র লোকসভা নির্বাচনে জনগণকে ভোটকেন্দ্র আসার জন্য উৎসাহ যোগানোর আহ্বান জানান। এনডিটিভি, দ্য হিন্দু, ইয়ন
প্রথমে রাহুল গান্ধী, মমতা ব্যানার্জী, মায়াবতী, অখিলেশ যাদভ, এমকে স্ট্যালিন, তেজস্বী যাদব, শরদ পাওয়ারসহ ২৮জন বিরোধী নেতাকে টুইট করে মোদি বলেন, ‘আমাদের গণতান্ত্রিক চর্চায় জনগণকে অংশ নিতে উৎসাহ যোগানোর জন্য আহ্বান করছি।’
বলিউডের জনপ্রিয় গানের অংশ ‘আপনা টাইম আ গিয়া’ লিখে মোদি রনভির সিংহ ও ভিকি খুশালকে টুইটে বলেন, ‘আমার প্রিয় বন্ধু, অনেক তরুণরাই আপনাদের ভক্ত। এখন তাদের বলার সময় এসেছে, ভোটকেন্দ্রে যেতে হবে।’ লিজেন্ডারি সিঙ্গার লতা মুঙ্গেশসর ও গীতিকার এআর রহমানকে টুইট করে মোদি বলেন, ‘জনগণের কণ্ঠ শোনার একমাত্র সেরা উপায় হচ্ছে ভোট।’প্রণব মুখার্জীকে টুইটে মোদি বলেন, ‘ভারতের অন্যতম রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব হিসেবে ভোটের ক্ষমতা আপনি জানেন। গণতন্ত্রের এই উৎসবে জনগণকে অংশগ্রহণের জন্য উৎসাহ যোগাতে আপনাকে অনুরোধ করছি।’ অমিতাভ বচ্চন, কারান জোহর ও শাহরুখ খানকে মোদি বলেন, ‘আপনাদের সৃষ্টিশীলতা ভোটারদের মধ্যে সচেতনতা জোরদার করতে সক্ষম। গণতন্ত্রের প্রতি আপনাদের ভালবাসাই ভোটারদের উদ্দীপনা যোগাবে।’ এছাড়া মোদি দীপিকা পাডুকন, আলিয়া ভাট, অক্ষয় কুমার, আয়ুস্মান খুরানা ও আনুশকা শর্মাকে টুইট করে জনগণকে ভোট দিতে উৎসাহ যোগানোর আহ্বান জানান। অনিল কুম্বলে, বীরেন্দর শেবাগ ও ভিভিএস লক্ষনকে টুইটে মোদি বলেন, ‘এখন সময় জনগণকে আবারো উদ্ধুদ্ধ করার।’ অক্ষয়কুমার, এআর রহমান ও কারান জোহর মোদির আহ্বানে সমর্থন জানিয়ে উত্তর দেন।
টুইটারে মোদির ৪ কোটি ৬৩ লাখ ফলোয়ার আছে। ১১ এপ্রিল থেকে ৯ মে ভারতে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ২৩ মে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষিত হবে। স¤পাদনা : নূর মাজিদ




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]