• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » আশ্রয়শিবিরে রোহিঙ্গাদের ভবিষ্যৎ নেই, প্রত্যাবাসনে উপযুক্ত কৌশল নির্ধারণের আহ্বান জানালেন আইনজীবী রাজিয়া সুলতানা


আশ্রয়শিবিরে রোহিঙ্গাদের ভবিষ্যৎ নেই, প্রত্যাবাসনে উপযুক্ত কৌশল নির্ধারণের আহ্বান জানালেন আইনজীবী রাজিয়া সুলতানা

আমাদের নতুন সময় : 15/03/2019

তরিকুল ইসলাম : নারী সাহসিকতায় ভূমিকা রাখায় ইন্টারন্যাশনাল উইমেন অব কারেজ পুরস্কার প্রাপ্ত রোহিঙ্গা বিষয়ক আইনজীবী রাজিয়া সুলতানা বলেছেন, বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের সেখানে কোনো ভবিষৎ নেই। এখানে তারা খাবার-দাবার পেলেও অন্যান্য সুবিধা থেকে বঞ্চিত। বস্তুত, বিষয়টা চিড়িয়া খানায় বেড়ে ওঠা বন্দিদের ন্যায়। উপযুক্ত কৌশলই পারে রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরাতে। বৈশ্বিক সম্প্রদায়ের প্রতি এর কৌশল খুঁজে বের করতে আমি আহবান জানাই।

গত বুধবার বার্তা সংস্থা রয়টার্সের সঙ্গে আলাপকালে এ আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আমি রোহিঙ্গাদের ভবিষ্যৎ পরিণতি নিয়ে খুবই হতাশ। রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মধ্যে আশার অভাব রয়েছে। বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া এসব রোহিঙ্গা সেখানে যত বেশি সময় থাকবেন ততই পরিস্থিতির অবনতি ঘটতে থাকবে। তাদের কোনো শিক্ষা নেই, নেই কোনো ভবিষ্যৎ। রোহিঙ্গা নারীদের সুযোগ ও নিরাপত্তা দিন। তারা আপনাকে বিস্মিত করবেন। এমনকি আশ্রয় শিবিরে বাল্য বিবাহ, গৃহনির্যাতন ও পাচারের মতো ঝুঁকি বেড়েছে।

মানব পাচার রোধে অভিযান চালাতে বাংলাদেশের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, এই সম্প্রদায়ের মধ্যে একটি উন্নত জীবনের আকাঙ্খা রয়েছে। তাই পাচার বন্ধ করা একটি কঠিন বিষয়। রোহিঙ্গাদের প্রত্যাশায় ঘাটতি দেখা দেওয়ায় পাচারের ঝুঁকি বেড়ে গেছে। পুলিশের রেকর্ডে দেখা যায়, শুধু এ বছরই পাচার চেষ্টার সময় শতাধিক রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করা হয়েছে। পাচারের সঙ্গে যারা জড়িত তাদের বিষয়ে কথা বলতে ভয় পান রোহিঙ্গারা। এ তথ্য প্রকাশ করলে তাদেরকে হত্যা করা হতে পারে। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় রোহিঙ্গা হিসেবে আমাকে স্বীকৃতি দেয়ায় আমি কৃতজ্ঞ। এ স্বীকৃতি পাওয়ার পর এটি এখন আমার কাছে একটি বড় ইস্যু। সম্পাদনা : ওমর ফারুক

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]