কৃষিপ্রধান দেশ এবং কৃষিবান্ধব আওয়ামী লীগ সরকার

আমাদের নতুন সময় : 15/03/2019

ফরিদুন্নাহার লাইলী : জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তার সুদীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনের সব পর্যায়েই কৃষিনির্ভর জীবন ব্যবস্থাকে প্রধান ক্ষেত্র হিসেবে দেখেছেন। চিন্তা ও দর্শনের মধ্যে চিরকালই তিনি লালন করেছেন বাঙালির আশা-আকাক্সক্ষার কেন্দ্রবিন্দু গ্রামের কৃষক-ক্ষেতমজুর-শ্রমজীবী মানুষকে। তিনি বিশ্বাস করতেন গ্রামভিত্তিক বাংলার উন্নতি মানে দেশের উন্নতি। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে তারই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কৃষি উন্নয়নকে অগ্রাধিকার দিয়ে গ্রামীণ অর্থনীতিতে প্রাণের সঞ্চার করেছেন। যার ফলে দেশে কৃষি উৎপাদন ও ব্যবস্থাপনায় এসেছে এক বৈপ্লবিক পরিবর্তন।
আওয়ামী লীগ সরকারকে কেন কৃষিবান্ধব সরকার বলা হয়? কারণ বিএনপি সরকারের আমলে কৃষককে সারের দাবিতে প্রাণ দিতে হয় আর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে কৃষকদের বাড়ি বাড়ি সার পৌঁছে দেয়। আপনারা নিশ্চয়ই ভুলে যাননি, ১৯৯৫ সালে ১৫ মার্চ ফুলপুর উপজেলায় কৃষকরা সারের দাবি করেছিলো, তৎকালীন বিএনপি সরকার সার দিতে না পেরে কৃষকদের ওপর গুলি চালিয়েছিলো। মারা গেলেন কৃষক রফিকুল ইসলাম, আহত হলেন বহু কৃষক। তখন বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা ওয়াদা করেছিলেন আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় গেলে সারের জন্য আর দাবি করতে হবে না, সার কৃষকের হাতে হাতে পৌঁছে যাবে। ক্ষমতায় এসে আওয়ামী লীগ সরকার সেই ওয়াদা পালন করেছেন। এছাড়াও আপনারা শুনলে অবাক হবেন কৃষি প্রধান দেশ বাংলাদেশের কৃষিকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে শেখ হাসিনার সরকার গত দশ বছরে কৃষি খাতে ভর্তুকি দিয়েছেন প্রায় চৌষট্টি হাজার কোটি টাকা। আমরা গর্বের সাথে আজ বলতে পারি বাংলাদেশ ক্ষুধামুক্ত দেশ। কেউ অস্বীকার করতে পারবে না, শেখ হাসিনার হাত ধরে উত্তরবঙ্গের মঙ্গা এখন জাদুঘরে স্থান নিয়েছে। সরকারের ধারাবাহিকতা আছে বলে খাদ্য নিরাপত্তা থেকে শুরু করে দেশের সার্বিক উন্নয়ন আজ দৃশ্যমান। আওয়ামী লীগ সরকারের নেতৃত্বেই বাংলাদেশ নি¤œ মধ্যম আয়ের দেশের মর্যাদা অর্জন করেছে। তাই দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে একমাত্র আওয়ামী লীগই পারবে বাংলাদেশকে ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে।
লেখক : কৃষি ও সমবায় সম্পাদক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এবং সাবেক সংসদ সদস্য




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]