• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » বিএনপি স্থায়ী কমিটির সভায় জোট ও ঐক্যফ্রন্টের ওপর নির্ভরতা কমানোর পরামর্শ বৈঠকে স্কাইপিতে যুক্ত ছিলেন তারেক


বিএনপি স্থায়ী কমিটির সভায় জোট ও ঐক্যফ্রন্টের ওপর নির্ভরতা কমানোর পরামর্শ বৈঠকে স্কাইপিতে যুক্ত ছিলেন তারেক

আমাদের নতুন সময় : 15/03/2019

শিমুল মাহমুদ : জোট ও ঐক্যফ্রন্টের ওপর নির্ভরতা কমিয়ে বিএনপিকে স্বাধীনভাবে রাজনীতি করার পরামর্শ দিয়ে বিএনপির নীতিনির্ধারকরা বলেন, ‘এখন নির্বাচন শেষ। এ নির্বাচনে যা অর্জন হওয়ার তা হয়েছে। তাই এবার জোট ও ঐক্যফ্রন্টের ওপর নির্ভরতা কমিয়ে নিজেদের সক্ষমতা বাড়ানোসহ সারাদেশে সাংগঠনিক তৎপরতা বাড়াতে হবে। একই সঙ্গে দলকে গোছাতে হবে।’ গত বুধবার রাতে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে দলটির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম স্থায়ী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়ে। সন্ধ্যা থেকে আড়াই ঘন্টার ওই বৈঠকে পুরো সময় স্কাইপিতে যুক্ত ছিলেন ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। বৈঠক সূত্রে জানা যায়, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট এবং ২০ দলীয় জোটের বিষয়েও আলোচনা ও পর্যালোচনা করা হয়। কয়েকজন নেতা কঠোর ভাষায় ঐক্যফ্রন্ট ও জামায়াতের সমালোচনা করেন। জামায়াতকে জোটে রাখার লাভ-ক্ষতির বিষয়টি আলোচনা হয়। পাশাপাশি ঐক্যফ্রন্ট গঠন ও পরবর্তীতে তাদের সিদ্ধান্তের ওপর বিএনপির অতিনির্ভরতার বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন তারা। তারেক রহমান নেতাদের বক্তব্য শুনেছেন। তিনি নেতাদের সঙ্গে কিছু কিছু বিষয়ে সহমত প্রকাশ করেন, দ্বিমত জানান কিছু বিষয়ে।

স্থায়ী কমিটির সভায় সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন নিয়েও পর্যালোচনা করা হয়। সিদ্ধান্ত হয়, আগামী দুই তিন দিনের মধ্যে সিনিয়র নেতারা বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে কারাগারে গিয়ে দেখা করবেন। সার্বিক বিষয় নিয়ে আলোচনা করবেন।

বৈঠকে স্থায়ী কমিটির এক সদস্য জামায়াতকে ২০ দলীয় জোটে রাখার বিরোধিতা করে বলেন, জামায়াত নানা কারণে বিএনপির জন্য দায় হয়ে পড়েছে। এছাড়া কয়েক বছর আগে যে বাস্তবতায় জামায়াতের সঙ্গে জোট করা হয়েছিলো, সেটি আর এখন নেই। এখন জামায়াতের সাংগঠনিক ভিত্তি নেই। আন্দোলনেও তাদের পাশে পাওয়া যায় না। এমতাবস্থায় তাদের জোটে রেখে লাভ নেই বলে মত দেন তিনি। অন্য এক সদস্য তাকে সমর্থন করে বলেন, জোটে জামায়াতের থাকা নিয়ে অন্য শরীকরাও আপত্তি তুলছে, বিষয়টি ভেবে দেখা দরকার।

সূত্র জানায়, বৈঠকে দলের স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য বলেন, প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আশায়  ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা বাস্তবতাকে বাদ দিয়ে নির্বাচনে যাওয়ার সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেন। তখন ওই নেতাকেই তাদের শীর্ষ নেতা হিসেবে মেনে নেয়া উচিত ছিলো কিনা, এমন প্রশ্ন তোলেন তিনি। বিএনপি ওই নেতার সিদ্ধান্তকে গুরুত্ব দিয়ে ৩০ ডিসেম্বরের ভোটে গিয়েছিল, এমন মত দিয়ে স্থায়ী কমিটির এ সদস্য আরো বলেন, বিএনপির নেতাদের মতামতের বাইরে ঐক্যফ্রন্টের ওই নেতার সিদ্ধান্তে নির্বাচনে যাওয়া হয়েছিলো । সম্পাদনা : শাহানুজ্জামান টিটু ও সালেহ্ বিপ্লব

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]