• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » বিশ্ব কিডনি দিবস পালিত কিডনি রোগে ভুগছে দেশের ২ কোটি মানুষ অসচেতনতার কারণে বাড়ছে মৃত্যুর হার


বিশ্ব কিডনি দিবস পালিত কিডনি রোগে ভুগছে দেশের ২ কোটি মানুষ অসচেতনতার কারণে বাড়ছে মৃত্যুর হার

আমাদের নতুন সময় : 15/03/2019

সুমন পাইক : নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে প্রাথমিক অবস্থায় রোগ নির্ণয় করে চিকিৎসার মাধ্যমে কিডনি রোগে মৃত্যুর হার কমিয়ে আনা সম্ভব। এই রোগ থেকে মুক্তি পেতে ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রন ও অনিয়মিত পেইনকিলার সেবন থেকে বিরত থাকতে হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিশ্ব কিডনি দিবস উপলক্ষ্যে বিশেষজ্ঞরা এ কথা বলেন। দেশের বিভিন্ন হাসপাতাল দিবসটি পালনে আলোচনা সভা, র‌্যালিসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে।

জাতীয় কিডনি ফাউন্ডেশনের তথ্য থেকে জানা যায়, বর্তমানে দেশে প্রায় ২ কোটি মানুষ কিডনি রোগে ভুগছে যা মোট জনসংখ্যার ১৭ শতাংশ। এর মধ্যে ডায়াবেটিস জনিত কারণে ৪১, উচ্চ রক্তচাপের কারণে ৩৩, সংক্রমণজনিত কারণে ২৫ এবং অন্যান্য কারণে এক ভাগ মানুষ কিডনি রোগে আক্রান্ত হয়। মোট রোগীর ২০ ভাগ রেনাল রিপ্লেসমেন্ট থেরাপির আওতায় আসলেও ৮০ ভাগ রোগী চিকিৎসা না পেয়ে মারা যান। যাদের মধ্যে ৩৫ হাজার রোগীর কিডনি স্থায়ীভাবে অকার্যকর হয়ে যায়। এছাড়া দেশে আকস্মিকভাবে কিডনি রোগে আক্রান্ত হন ১৫ থেকে ২০ হাজার এবং ধীরগতিতে আক্রান্ত হন ৩০ থেকে ৪০ হাজার মানুষ। আর এসব রোগীদের মধ্যে ডায়ালাইসিস করে বেঁচে আছেন ৮ থেকে ১০ হাজার মানুষ। বাকিরা মৃত্যু বরণ করেন।

কিডনি ফাউন্ডেশনের মেডিকেল অফিসার ডা. শেখ মঈনুল খোকন বলেন, অসচেতনতার কারণে কিডনি রোগীর সংখ্যা দ্রুত বাড়ছে। দেশে চিকিৎসা সংকট রয়েছে। কিডনি রোগে আক্রান্ত রোগীদের সামাজিক অবস্থান কিংবা পারিপার্শ্বিক অবস্থা বিবেচনা না করে সবাইকে দ্রুত সেবা দিতে হবে। সেই সঙ্গে মানুষ যেনো এ রোগে আক্রান্ত না হয়ে সেটি নিশ্চিত করতে হবে। জনগণের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে। স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন, স্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহণ, নিয়মিত শরীর চর্চা ও ধূমপান মুক্ত জীবন যাপনে উৎসাহিত করতে হবে। এসবের মাধ্যমেই কিডনি রোগ নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের নেফ্রোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান ডা. মিজানুর রহমান জানান, দেশের সব হাসপাতাল এবং উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলোতে কিডনি বিশেষজ্ঞের সংখ্যা অনেক কম। ফলে কিডনি রোগীরা সঠিকভাবে চিকিৎসা পান না। প্রাথমিক অবস্থাতেই যদি এসব রোগীকে উপযুক্ত চিকিৎসা দেওয়া যায় তবে কিডনিরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা কমে আসবে। সম্পাদনা : ওমর ফারুক

 

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]