এবার ৩০ বছরে পা দেবে মঙ্গল শোভাযাত্রা

আমাদের নতুন সময় : 13/04/2019

ইসমাঈল ইমু : চারুকলার মঙ্গল শোভাযাত্রার ৩০ বছর পূর্তি হবে এ বছর। এজন্য আয়োজনের ব্যাপকতাও খানিকটা বেশি। দিনরাত পরিশ্রম করছেন চারুশিল্পীরা। এবারের প্রতিপাদ্য ‘মস্তক তুলিতে দাও অনন্ত আকাশে’। এ কারণে শোভাযাত্রায় প্রাধান্য পাচ্ছে আকাশে উড়াল দেয়া ডানামেলা পাখি। এবার পয়লা বৈশাখে মঙ্গল শোভাযাত্রার প্রতিপাদ্যটি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নৈবেদ্য কাব্যের একটি চরণ।
চারুকলার দেয়াল সেজে উঠছে তুলির আঁচড়ে। শোভা পাচ্ছে রিক্সা পেইন্টিং, ট্রাকের গায়ের আল্পনা। রঙ-তুলি নিয়ে ব্যস্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের ছাত্র-শিক্ষকরা।
দেয়ালের ওপারে সবুজ চত্বরে লোকজ প্রতীকের অবকাঠামো তৈরিতে ব্যস্ত একদল শিক্ষার্থী। মঙ্গল শোভাযাত্রার পুরোভাগে থাকবে পাখি ও ছানা, হাতি, মহিষ, মা ও শিশু, মাছ, বক, জাল ও জেলে, ট্যাপা পুতুলসহ আটটি বড় শিল্পকাঠামো। এবার এই যজ্ঞের নেতত্বে চারুকলার ২১ ব্যাচের ছাত্র-ছাত্রীরা। একেকটি ব্যাচ একেকটি প্রতীককে বাস্তব করে তুলছেন। নিজেদের তৈরি শিল্পকর্ম নিয়ে গেটে পসরা সাজিয়েছেন আয়োজকরা। দর্শনার্থীরা দেখছেন, পছন্দ হলে কিনে ঘরে ফিরছেন। মূলত এসব সামগ্রী বিক্রি করেই মঙ্গল শোভাযাত্রার এই বিশাল কর্মযজ্ঞ চলে। জয়নুল গ্যালারিসহ কয়েকটি কক্ষ ও ওয়ার্কশপে তৈরি হচ্ছে নানা আকৃতির মুখোশ। রয়েছে পেইন্টিং, মাটির সরা, পাখি, সূর্য, লকেটসহ লোকজ সংস্কৃতির নানা উপাদান।
মেট্রোরেলের নির্মাণ কাজ চলায় এবারের মঙ্গল শোভাযাত্রার পথ বদলেছে। শোভাযাত্রাটি চারুকলা থেকে শুরু হয়ে শাহবাগ মোড় ঘুরে শিশুপার্কের দিকে গিয়ে আবার শাহবাগ হয়ে ফুলের দোকানগুলোর পাশ দিয়ে টিএসসির রাজু ভাস্কর্য সড়ক দ্বীপ ঘুরে চারুকলায় ফিরবে। সম্পাদনা : মোহাম্মদ রকিব




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]