• প্রচ্ছদ » » সৈয়দ হাসান ইমাম মনে করেন,পহেলা বৈশাখ একটা সামাজিক উৎসব ও সামাজিক আন্দোলন


সৈয়দ হাসান ইমাম মনে করেন,পহেলা বৈশাখ একটা সামাজিক উৎসব ও সামাজিক আন্দোলন

আমাদের নতুন সময় : 14/04/2019

লিয়ন মীর : মুক্তিযোদ্ধা ও নাট্যব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম পহেলা বৈশাখ সম্পর্কে বললেন, পহেলা বৈশাখ যেমন একটা সর্বজনীন সামাজিক উৎসব, ঠিক তেমনি একটা সামাজিক ও রাজনৈতিক আন্দোলনও বটে।
তিনি বলেন, আমাদের দেশে অনেক উৎসব পালন করা হয়, কিন্তু সেই উৎসবগুলো নির্দিষ্ট ধর্মের মধ্যে সীমাবদ্ধ। সব ধর্মের মানুষ একত্রে পালন করতে পারে এমন কোনো উৎসব আমাদের দেশে ছিলো না। কিন্তু বর্তমানে পহেলা বৈশাখ সমগ্র বাঙালির সর্বজনীন উৎসবে পরিণত হয়েছে। পহেলা বৈশাখ সব ধর্মের, সব মানুষের বলে তিনি মন্তব্য করেন।
স্মৃতিচারণ করে বলেন, পহেলা বৈশাখ তো মধ্যবিত্ত জীবনে সেভাবে হতো না। আমাদের শৈশবে এটা ছিলো ব্যবসায়ীদের অনুষ্ঠান। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হতো না, হতো হালখাতা। কোনো কোনো দোকানে বড় করে আয়োজন হতো। লাল একটা খাতা ছিলো, সেখানে সব বাকির হিসাব লেখা থাকতো। হালখাতার দিন সব শোধ করে দিতে হতো। সেদিন কিন্তু স্কুল খোলা থাকতো। স্কুল থেকে ফেরার পথে সেসব দোকান ঘুরে আসতাম। নতুন কাপড়ও পরতাম সেদিন। গ্রামে তখন মেলা হতো। তখনকার বৈশাখী আমেজের পুরোটাই ছিলো গ্রামকেন্দ্রিক।
তিনি আরো বলেন, নাগরিক জীবনে পহেলা বৈশাখ প্রথম আমরাই নিয়ে এলাম, ছায়ানটের মাধ্যমে। তারপর বর্তমান এই রূপ নিয়েছে। আমাদের দেখাদেখি কলকাতায়ও এই মেলা হচ্ছে, যদিও এতো বড় করে ওখানে হয় না। পহেলা বৈশাখের যে শোভাযাত্রা, চারুকলার সহায়তায় সেটা আমরা কয়েকজন মিলে সূচনা করেছিলাম আলী যাকের, আসাদুজ্জামান নূর, কামাল পাশা, নাসির উদ্দীন ইউসুফ বাচ্চু আর আমি। প্রথমবার আমাদের বাজেট ছিলো সাত হাজার টাকা। চারুকলা থেকে মুখোশ পরে বের হতাম। এই মুখোশ যখন আমরা ঠিক করি, তখন ভাবলাম এগুলো অকশন করলে তো কিছু টাকা পাওয়া যায়। অকশনে আমি ৫০০ টাকা দিয়ে একটা ঘোড়ার মুখ কিনলাম। এখন কী হয় ঠিক জানি না। এখন আর ভোরবেলায় গিয়ে মিছিলে যোগ দিতে পারি না। ইচ্ছা করে, কিন্তু শারীরিক সক্ষমতা নেই। দিনের বেলা এখনো ওখানে গিয়ে কবিতা পড়ি। অশোকগাছের নিচে আমরা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিলাম প্রথম। ড. নওয়াজিশ আলী খান পরামর্শ দিয়ে। অশোক গাছটিই পরে মুখে মুখে বটগাছ হয়ে গেছে।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]