নারায়ণগঞ্জ ও পাবনায় দুই স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

আমাদের নতুন সময় : 16/04/2019

আজাদুল ইসলাম : নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার ও পাবনায় বেড়া উপজেলায় দুই স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ধর্ষণের এ ঘটনায় উভয় পরিবারের পক্ষ  থেকে মামলা করা হলেও, এখন পর্যন্ত একজনকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ।

নারায়ণগঞ্জ থেকে মো. শাহজালাল জানান, জেলার আড়াইহাজার উপজেলায় ১৪ বছর বয়সী এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার দুপুরে আটক যুবককে আদালতে পাঠানো হয়।

আড়াইহাজার থানার এসআই ফায়জুর রহমান জানান, গত ১১ এপ্রিল উপজেলার প্রভাকরদী গ্রামের তোতার মিয়ার ছেলে বখাটে লিটন ওই শিশুকে কৌশলে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে পার্শ¦বর্তী একটি গরুর পরিত্যক্ত খামারে নিয়ে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে ওই শিশুর চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে এলে লিটন পালিয়ে যান। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয় প্রভাবশালীরা মীমাংসা করার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। পরে থানায় অভিযোগের ভিত্তিতে গত রোববার রাতে লিটনকে আটক করা হয়। গতকাল দুপুরে আটক লিটনকে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।

অপরদিকে পাবনা সংবাদদাতা কালাম আজাদ জানান,  জেলার বেড়া উপজেলার আমিনপুরে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে সিএনজিচালিত অটোরিক্সা চালক জহুরুল (২৬) ও তারবন্ধু মুজিব (২৪)’র বিরুদ্ধে মামলা হলেও এখন পর্যন্ত আসামিরা গ্রেফতার হয়নি। নির্যাতিতা স্কুলছাত্রী পাবনার বেড়া উপজেলার আলহাজ¦ ইমান আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

আসামীরা হলো, আমিনপুর থানার বৃ-নান্দিয়ারা গ্রামের আবু সাইদের ছেলে জহুরুল ইসলাম ও আবুল সাপুড়ের ছেলে আলামিন ওরফে মুজিব।

নির্যাতিত স্কুলছাত্রী জানায়, গত রোববার দুপুরে আমিনপুর থানার দিঘলকান্দি গ্রামে বোনের বাড়ি থেকে বাঘলপুর গ্রামের নিজ বাড়িতে  ফেরার উদ্দেশ্যে অটোভ্যানে রওনা হয়। পথিমধ্যে অটোভ্যান নষ্ট হয়ে গেলে তাকে একটি সিএনজি চালিত অটোরিক্সায় তুলে দেন ভ্যানচালক। কিছু পথ অতিক্রমের পর চালক আলামিন ও তার বন্ধু জহুরুল অটোরিক্সাটি একটি নির্জন বাগানের মধ্যে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। পড়ে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে বাড়িতে পৌঁছে দেয়। এ ঘটনায় ঐ ছাত্রীর মা বাদী হয়ে রোববার রাতে আমিনপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন। গতকাল সোমবার পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নির্যাতিতা স্কুলছাত্রীর ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, প্রাথমিক পরীক্ষায় স্কুলছাত্রীকে নির্যাতনের প্রমাণ মিলেছে। তবে এ বিষয়ে কথা বলতে রাজী হয়নি পাবনার কোনো পুলিশ কর্মকর্তা।

আমিনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, নির্যাতিতার মা বাদী হয়ে থানায়  দুইজনকে আসামি করে মামলা করেছেন। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যহত আছে।

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]