• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » বেগম খালেদা জিয়া রাজনৈতিকভাবে চলে যেতে পারেন এরশাদের ভূমিকায়  এরশাদের ৪২ মামলায় ১টি , খালেদা জিয়ার ৩৬ এ ২টির রায়, বাকিগুলো ঝুলে যাবে


বেগম খালেদা জিয়া রাজনৈতিকভাবে চলে যেতে পারেন এরশাদের ভূমিকায়  এরশাদের ৪২ মামলায় ১টি , খালেদা জিয়ার ৩৬ এ ২টির রায়, বাকিগুলো ঝুলে যাবে

আমাদের নতুন সময় : 16/04/2019

বিশ্বজিৎ দত্ত : বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া জেলখানা থেকে বের হতে চাচ্ছেন। আবার চিকিৎসার জন্য খুব শীঘ্রই প্যারোলে ছাড়া পাচ্ছেন এমন কথাও শুনা যাচ্ছে। এই বিষয়গুলো সামনে এসেছে প্রধানত দুটি ঘটনার প্রেক্ষিতে প্রথমটি হলো বেগম জিয়ার বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসায় সম্মতি। দ্বিতীয়টি হলো, বিএনপি নেতাদের বক্তব্য সরকার যদি খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেয় তবে তাদের নির্বাচিত এমপিরা সংসদে যোগ দেবে। এখানে বিএনপি মহাসচিব মির্জ্জা ফখরুল একটু অগ্রসর হয়ে বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়ার প্যারলে মুক্তির বিষয়টি তার পরিবারের। তারমানে হলো, খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়টি আর রাজনৈতিক নয়। এই অবস্থায় খালেদা জিয়ার অবস্থা রাজনীতিতে এরশাদের মতো হতে যাচ্ছে বলে মনে করছেন অনেক রাজনৈতিক বিশ্লেষক।

১৯৯০ সালের শেষ দিকে গণআন্দোলনে এরশাদ ক্ষমতাচ্যুত হয়। এরপর তার নামে অবৈধভাবে  ক্ষমতা দখল, হত্যা, দুর্নীতি, রাষ্ট্রিয় সম্পদ আত্মসাৎ, পাচার এসব বিষয় নিয়ে প্রায় ৪২টি মামলা দায়ের হয়। এরমধ্যে একটি মামলায় তার বিচার হয়েছিল। বাকি মামলাগুলোতে জামিনে আছেন এরশাদ। এরশাদের এই বিশাল মামলার সুযোগ নিয়ে তাকে বিএনপি ও আওয়ামী লীগ দুই দলই ব্যবহার শুরু করে। বিশেষ করে মঞ্জুর হত্যা মামলা ও অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলের মামলা অন্যতম। যেখানে বলা হয়েছে সংসদ ইচ্ছে করলে যে কোন সময় এই মামলার বিচার চাইতে পারে।

রাজনৈতিক বিশ্লেষক ড. রওনক জাহান বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে বলেছিলেন, আওয়ামী লীগ  ও বিএনপি দুই দলই এরশাদকে নিয়ে খেলেছে। তার বিরুদ্ধে দেয়া অনেকগুলো মামলা বাঁচিয়ে রেখে।

২০৯৬ সালে আওয়ামী লীগকে সরকার গঠনে সহায়তা করে এরশাদ। ২০০১ সালে বিএনপি এরশাদকে নিয়ে জোট করেছিল। এরপরে আওয়ামী লীগের সঙ্গে ২০০৮ সালে মাহাজোট করে এরশাদ। এটি এখনো বলবত। এরমধ্যে এরশাদ মাহাজোট থেকে বের  হওয়ার ঘোষণা  দিলেও আবার আওয়ামী লীগের চাপে মহাজোটে ফিরে এসেছে।

এ্কইভাবে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়াও একই পথে যাচ্ছেন বলে মনে করা হচ্ছে।  বর্তমানে তার বিরুদ্ধে হত্যা, দুর্নীতি, রাষ্ট্রদ্রোহ, বঙ্গবন্ধু অবমাননাসহ ৩৬টি মামলা রয়েছে। এরমধ্যে জিয়া অরফানেজ ট্্রাস্টও চ্যারিটেবল মামলায় তার কারদ- হয়েছে ১৭ বছর। অন্যন্য মামলা বিচারাধীন রয়েছে। এ অবস্থায় খালেদা জিয়ার মুক্তি এরশাদের পথেই হতে পারে। বিরোধী রাজনৈতিক নেত্রীর ভূমিকা থেকে সরকারের সহায়ক বিরোধীতার ভূমিকায়। সম্পাদনা : ওমর ফারুক

 

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]