‘হাউস অব হরর’খ্যাত দম্পতির যাবজ্জীবন

আমাদের নতুন সময় : 21/04/2019

লিহান লিমা : ১৩ সন্তানকে ঘরবন্দি করে মারধর, ক্ষুধায় কষ্ট দেয়াসহ ও নানা নির্যাতনের অভিযোগে যাবজ্জীবন কারাদ- দেয়া হয়েছে ‘হাউস অব হরর’ খ্যাত ক্যালিফোর্নিয়ার দম্পতি ডেভিড টারপিন (৫৭) ও তার স্ত্রী লুইসিকে (৫০)। তবে ২৫ বছর পর প্যারোলে মুক্তি পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তাদের। ডেইলি মেইল, বিবিসি
আদালতে নির্যাতনের শিকার হওয়া ব্যক্তির জবানবন্দি দেন এই দম্পতির বড় দুই সন্তান। ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে মুক্তি পাওয়ার পর এই প্রথমবার জনসম্মুখে আসেন তারা। তাদের ৩০ বছরের কন্যা জেনিফার বলেন, ‘আমার বাবা-মা আমাদের জীবনকে ছিনিয়ে নিয়েছেন, কিন্ত আমি আবার বাঁচার জন্য লড়াই করে যাচ্ছি।’ তার ভাই জোসোয়া (২৭) বলেন, ‘এখনো আমি দুঃস্বপ্ন দেখি, আমাকে ও আমার ভাই-বোনকে শেকল বেঁধে মারধর করা হচ্ছে।’ তবে কন্যা জয় বাবা-মায়ের পক্ষ নিয়ে বিবৃতিতে বলেন, ‘তারা আমাদের ঘরবন্দি রেখে ঠিক করেন নি। কিন্তু এটিও সত্যি তারা জানতেন না আমরা অপুষ্টিতে ভুগছি। তাদের শাস্তি চাই না।’ সন্তানদের ভাষ্য শোনার সময় কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন ডেভিড-লুইস দম্পতি। তারা সন্তানদের সঙ্গে করা ব্যবহারের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করেন।
২০১৮ সালের জানুয়ারিতে তাদের ১৭ বছরের কন্যা জর্ডান বাসা থেকে পালিয়ে ৯১১ নাম্বারে ফোন দেয়ার পর তাদের কর্মকা- সামনে আসে। জানা যায়, ২ থেকে ২৯ বছরের সন্তানদের হয়রানি, নিপীড়ন, নির্যাতন ও মারধর করে আসছেন তারা। এই দম্পতি সন্তানদের প্রকাশ্যে আনতেন না। শুধুমাত্র হ্যালোইন উপলক্ষ্যে একবার ডিজনিল্যান্ড ও আরেকবার বসন্তকালীন ছুটিতে লাস ভেগাসে বেড়াতে গিয়েছিলেন তারা। তাদের ওই দুই ছবিই ভাইরাল হয়েছে।
বিচারক কেইথ কেজওয়ার্ট এই দম্পতিকে স্বার্থপর, নৃশংস ও সন্তানদের প্রতি অমানবিক বলে মন্তব্য করেন। তবে নিজের পক্ষে দেয়া বিবৃতিতে ডেভিড টারপিন বলেন, ‘আমাকে অনেক সন্তান দেয়ার জন্য ইশ্বরকে ধন্যবাদ। তারা সবাই ইশ্বরের আর্শীবাদ। আমি তাদের হোমস্কুলিং করেছি এবং আমার উদ্দেশ্য সৎ ছিলো। আমি কখনোই ভাবি নি এটি তাদের ক্ষতির কারণ হবে।’ সম্পাদনা : আসিফুজ্জামান পৃথিল




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]