অ্যাভেঞ্জার্স ছবির প্রতি সেকে-ে ১৮টি করে টিকিট বিক্রি হচ্ছে ভারতে

আমাদের নতুন সময় : 27/04/2019

ইমরুল শাহেদ : হলিউডে নির্মিত ‘অ্যাভেঞ্জার্স : এন্ডগেম’ গতকাল শুক্রবার ভারতসহ বিশ্বজুড়ে মুক্তি পেয়েছে। শধু ভারতেই এই ছবিটি মুক্তি পেয়েছে আড়াই হাজার সিনেমা হলে। বলতে গেলে হলিউডের ছবির জন্য ভারতে এটা হলো একটা বড় ধরনের রেকর্ড। ভারতের বিজনেস টুডের প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, ভারতে ছবিটি ব্যবসা করতে পারে ৩৫০ থেকে ৪০০ কোটি রুপি। ইংরেজি ছাড়াও ছবিটি হিন্দি, তামিল এবং তেলেগু ভাষায় মুক্তি পেয়েছে। বুকমাইশো জানিয়েছে, প্রথম দিনেই বিক্রি হয়েছে প্রায় ২৫ লাখ টিকিট। প্রতি সেকেন্ডে ১৮টি করে টিকিট বিক্রি হয়েছে বলে বিজনেস টুডে উল্লেখ করে। বিজনেস টুডে, ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, এই সময়।
ডিজনি ইন্ডিয়ার তরফে বিক্রম দুগগাল জানালেন, ‘অ্যাভেঞ্জার্স : এন্ডগেম নিয়ে ভক্তদের মধ্যে উত্তেজনা তুঙ্গে। কী হতে চলেছে এই কৌতুহলই সকলের মনে। মার্ভেল সুপারহিরো ছবির চাইতেও সম্ভবত সবচেয়ে বেশি ব্যবসা করবে এই ছবি, এমনটাই ধারণা করা হচ্ছে। সিনেমাহলে দর্শকের ভিড় প্রমাণ করছে অ্যাভেঞ্জার্স নিয়ে বিশ্বের উন্মাদনা কতখানি। মার্ভেলের এই ছবি ‘অ্যাভেজ্ঞার্স : এন্ডগেম’ প্রায় সব সিনেপ্রেমীদের এক ছাদের তলায় নিয়ে এসেছে। রিলিজের আগেই রেকর্ড ব্রেকিং অগ্রিম বুকিং। অ্যাভেঞ্জার্সে ইনফিনিটি ওয়ারের আবেগঘন পরিণতির পর দর্শক প্রস্তুত অ্যাভেঞ্জার্স এন্ডগেম দেখতে। তবে আগের ছবির মতোই নির্মাতারা বারবার অনুরোধ করছেন স্পয়লার না দেওয়ার জন্য।
২০১৮ সালে অ্যাভেঞ্জার্স ইনফিনিটি ওয়ার মুক্তির পর থেকেই দর্শকের উন্মাদনা রয়েছে। জোয় ও অ্যান্থনি রুশো এই ছবিটি পরিচালনা করেছেন। ছবিতে থ্যানোসের কাছে পরাস্ত হয়েছে বেশিরভাগ সুপারহিরোরা। আর এই ছবিতে দর্শক সুপারহিরোদের ফিরে আসার প্রচেষ্টা দেখতেই তৎপর বলে মনে করা হচ্ছে।
থ্যানসের হাতে শেষ হয়েছে ব্রহ্মা-ের অর্ধেক। বদলা নেওয়ার শেষ সুযোগ ব্রহ্মা-ের রক্ষাকর্তা অ্যাভেঞ্জার্সদের। থ্যানসকে হারিয়ে পৃথিবীকে বাঁচাতে পারবেন তারা? তার উত্তর নিয়েই ‘অ্যাভেঞ্জার্স : এন্ডগেম’।
ছবির প্রচার হোক কিংবা সাক্ষাৎকার, নির্মাতারা বারবার বলে এসেছেন, এই ছবির লক্ষ্য ছয় জন অরিজিনাল সুপারহিরোর উপরেই। তারা হলেন- আয়রন ম্যান, ক্যাপ্টেন আমেরিকা, থর, হাল্ক, ব্ল্যাক উইডো এবং হওকি। তারা যে ক্যাপ্টেন মার্ভেল ও আ্যান্টম্যানের সহায়তা পাবে একথা বলার অপেক্ষা রাখে না। এন্ডগেম ফিরিয়ে আনতে পারে ওকোয়ে, জেমস রোডস, রকেট এবং নেবুলাকে। যারা থ্যানোসের হাত থেকে বেঁচে গিয়েছিল। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]