মোদীর বায়োপিক মুক্তি স্থগিতে ইসির সিদ্ধান্তই বহাল রাখলো ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

আমাদের নতুন সময় : 27/04/2019

 

ইমরুল শাহেদ : ভারতের সুপ্রিম কোর্ট ‘পিএম নরেন্দ্র মোদী’ বায়োপিক নিয়ে নির্বাচন কমিশন যে প্রতিবেদন দিয়েছে তাতে কোনো হস্তক্ষেপ করতে চায় না বলে শুক্রবার জানিয়ে দিয়েছে। ১৯ মে ভারতের লোকসভা নির্বাচন শেষ হওয়ার পরই ছবিটি মুক্তি পাবে। ইয়নটিভি
নির্বাচন কমিশনের প্রতিবেদনে সুপ্রিম কোর্টকে জানানো হয়েছে, ‘বায়োপিকটি একটি হ্যাজিওগ্রাফি। এতে অহেতুক অতি ভক্তি দেখানো হয়েছে। নির্বাচনি প্রচারের এ সময়টাতে ছবিটি প্রদর্শিত হলে নির্বাচনের ভারসাম্য নষ্ট হতে পারে।’ ২০ পৃষ্ঠার এই প্রতিবেদনটি প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বে গঠিত উচ্চ আদালতের বেঞ্চে পেশ করা হয়েছে।
প্রতিবেদনে বলা হয়, ছবিটিতে এমন একটা রাজনৈতিক পরিবেশ সৃষ্টি করা হয়েছে, যাতে একজনকে সাধারণ মানুষকে কিংবদন্তিতে পরিণত হয়ে ওঠতে দেখানো হয়েছে। এই ছবিটি প্রদর্শনের অনুমতি দেওয়া হলে নির্বাচনি বিধিমালাই একটি রাজনৈতিক দলকে আনুকূল্য দেবে।
নির্বাচন কমিশন বলেছে, এ ছবিতে প্রধান বিরোধী দলকে দুর্নীতিবাজ হিসেবে চিত্রিত করা হয়েছে এবং দলটিকে অত্যন্ত নগণ্যভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। বিরোধী দলের নেতাদের এমন হেলাফেলা করে উপস্থাপন করা হয়েছে যে, তাদের আচরণ থেকেই তাদের পরিচয় ভেসে ওঠে।
প্রতিবেদনে বলা হয়, ছবিটি বায়োপিকের গ-ি অতিক্রম করে হ্যাজিওগ্রাফি বা মহাপুরুষের স্থানে পৌঁছে গেছে। ছবিটির গঠনশৈলী এমনভাবে বিন্যাস করা হয়েছে যাতে মনে হয় বিশেষ প্রতীক, শ্লোগান এবং দৃশ্যের মাধ্যমে একজনকে উচ্চ স্তরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ছবিটি মুক্তির বিষয়ে উচ্চাদালত থেকে নির্বাচন কমিশনের এখতিয়ার চাওয়া হলে নির্বাচন কমিশন এই প্রতিবেদন পেশ করে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে নিয়ে নির্মিত বায়োপিকটি লোকসভা নির্বাচন চলাকালীন মুক্তি দেওয়া যাবে না বলে নির্বাচন কমিশন যে সিদ্ধান্ত দিয়েছে, তাকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেছিলেন ছবির প্রযোজকরা। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]