• প্রচ্ছদ » » ‘অসৎ মালিক’নামা এবং সাংবাদিকদের ঢং!


‘অসৎ মালিক’নামা এবং সাংবাদিকদের ঢং!

আমাদের নতুন সময় : 11/05/2019

আশিকুর রহমান অপু

সাংবাদিকদের ইদানীং ঢং হয়ে দাঁড়িয়েছে ‘অসৎ মালিক’ শব্দটি ব্যবহার করে নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকবার চেষ্টা। আমার প্রশ্ন : ভাই সাহেবরা আপনারা কোনো মালিককে দুধে ধোয়া তুলসীপাতা ভেবে কাজ শুরু করেছিলেন বলেন তো। বেশিরভাগ মিডিয়া মালিকই বড় বড় ব্যবসায়ী, তাদের নামে বাজারে গল্পের অভাব নেই। এটা সবাই জানে এই মালিকেরা তাদের অন্য ব্যবসা বা রাজনীতির সুরক্ষায় মিডিয়া খোলে। এটা জেনে, বুঝেই আপনারা তাদের প্রতিষ্ঠানে চাকরি নেন। এটা অস্বীকার করবেন এমন একজনও কি আছেন? হ্যাঁ অনেকেই ভাবেন, এ রকম পরিস্থিতিতে চাকরি নিয়েও লড়াই চালাবেন ভালো কিছু বের করে আনার। সেখানে ব্যর্থতা বা সফলতা আসবে এটাই স্বাভাবিক।
এখন গোষ্ঠীসহ মিডিয়াকে বিপদে যারা ফেলেছেন তারা মালিকপক্ষ নন। মালিকেরা এমনই হবেন, এই পৃথিবীতে এটাই স্বাভাবিক। তাদের ব্যবসা যাদের হাতে সেই আপনারা সিনিয়র সংবাদকর্মীরা বেশিরভাগই ব্যর্থ মালিকের লাভ তুলে দিতে এবং পুরোপুরি ব্যর্থ পরবর্তী প্রজন্মের জন্য একটা ভালো কর্মপরিবেশ দিতে। আপনারা যারা নিজেদের বিশাল হ্যাডমওয়ালা ভাবেন, অথচ হাউজ টেকাতে কিছুই করতে পারছেন না, মালিকদের গালাগালি করা ছাড়া, তাদের এখন আত্মজিজ্ঞাসার সময়।
আপনারা কি যোগ্য লোক? গণমাধ্যম পরিচালনার বা হাউজে নেতৃত্ব দেবার প্রকৃত যোগ্যতা কি আপনার আছে? আপনার প্রতিষ্ঠানে যেসব জুনিয়র কর্মী, তারা কিন্তু বেশিরভাগই মালিক দেখে না, আপনাদের সিনিয়রদের দেখেই হাউজ বাছে। তাদের আস্থা রাখার যোগ্য কি আপনারা? দেশ কাঁপানো ৮০-৯০ দশকের প্রজন্ম বলেই কি আপনারা সফল? নাকি এই ২০১৯-এ গণমাধ্যমকে এমন বিপজ্জনক অবস্থায় নিয়ে আসার খলনায়ক আপনারা। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]