• প্রচ্ছদ » » প্রধামন্ত্রীর চোখের চিকিৎসা এবং চিকিৎসকদের সাহস-অসাহস!


প্রধামন্ত্রীর চোখের চিকিৎসা এবং চিকিৎসকদের সাহস-অসাহস!

আমাদের নতুন সময় : 11/05/2019

গোলাম মোর্তোজা

‘দেশের ডাক্তাররা সাইকোলজিক্যাল কারণে আমার চোখ অপারেশনের ঝুঁকি নিতে রাজি হননি। তাই বাধ্য হয়ে ব্রিটেনে এই চিকিৎসা নিতে হলো।’Ñপ্রধানমন্ত্রী। দেশের ডাক্তারদের প্রতি আমার গভীর শ্রদ্ধা। অনেকবার তা লিখেছি। আজ লিখছি ‘সাইকোলজিক্যাল কারণে’ যে ডাক্তার বা ডাক্তাররা প্রধানমন্ত্রীর চোখ অপারেশন করতে রাজি হননি, বিনয়ের সঙ্গে বলি হয় কথা বলে বিষয়টি পরিষ্কার করতে হবে, সাহস করে ব্যাখ্যা দিতে হবে, তা না করতে পারলে দয়া করে আপনারা ডাক্তারি পেশাটা ছেড়ে দিন। আপনি বা আপনারা নিজেই সুস্থ মানুষ নন। আপনার বা আপনাদের কয়েকজনের অসুস্থতা বা অযোগ্যতার কারণে প্রধানমন্ত্রীকে ‘বাধ্য হয়ে’ ব্রিটেনে যেতে হয়েছে। যা পুরো ডাক্তার সমাজের জন্য এবং বাংলাদেশের মানুষের জন্য অসম্মানজনক। বিএমএর কর্তব্য, সকল প্রকার চিকিৎসা কার্যক্রম থেকে এসব ডাক্তারদের বিরত রাখা।
নির্বাচিত মন্তব্য : আহসান উল্লাহÑ সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ও কাউন্সিলর আজাদুর রহমানের অনুসারী সারোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে একদল ছাত্রলীগ কর্মী চিকিৎসা নিতে গিয়ে দায়িত্বরত শিক্ষানবিশ চিকিৎসকদের অকথ্য ভাষায় গালাগাল করেন। সারোয়ার ধারালো অস্ত্র দেখিয়ে তাদের হত্যা ও ধর্ষণেরও হুমকি দেন। নিজের ফেসবুক পোস্টে ডা. নাজিফা আনজুম নিশাত নামের একজন শিক্ষানবিশ চিকিৎসক বলেন, কর্তব্যরত চিকিৎসকের অনুরোধে আমি রোগী দেখতে যাই। গিয়ে দেখি রোগীর সঙ্গে আরও ১৫-১৬ জন রয়েছেন। তখন একজন বাদে বাকিদের বেরিয়ে যেতে বলি। কিন্তু জবাবে তারা বলেন, ‘তোমার এমডিকে আমি কান ধরে এনে দাঁড় করাবো। করো ট্রিটমেন্ট।’ ‘আমি তখন বললাম, কি বললেন আপনি? সে বললো, (আঙুল উঁচিয়ে), কিছু বলিনি। পেসেন্ট ছাত্রলীগের প্রেসিডেন্ট। ট্রিটমেন্ট দাও।’
তিনি বলেন, ‘এর মধ্যে আমি পেসেন্টের বিপি মাপা শুরু করে দিয়েছি। তখন তিনি আমাকে তুই-তোকারি শুরু করলেন। আমি আর সহ্য করতে না পেরে কান্না করতে করতে সিএ, আইএমও রুমে গিয়ে ভাইয়া-আপুদের ঘটনা জানাই। তারপর সেই ছেলে আমার পেছন পেছন এসে কোমর থেকে ছুরি দেখিয়ে বললোÑতোর সাহস কতো। লাশ ফেলে দিবো।… বাইরে বের হ একবার। রেপ করে ফেলবো। আমার পা ধরে তোকে মাফ চাওয়া লাগবো…।’ ঝঃরষষ ইধহমষধফবংযর ফড়পঃড়ৎ’ং মরারহম ঃৎবধঃসবহঃ ঃড় ঃযরং ঢ়বড়ঢ়ষব’ং… ও ঃযরহশ রঃ’ং ঁহনবষরবাধনষব…! ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]