লাইফ সাপোর্টে এটিএম শামসুজ্জামান দেশের বাইরে নিতে চায় পরিবার

আমাদের নতুন সময় : 11/05/2019

স্বপ্না চক্রবর্তী : দুই সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে রাজধানীর আসগর আলী হাসপাতালের চিকিৎসাধীন বরেণ্য অভিনেতা এ টি এম শামসুজ্জামান। চিকিৎসা শুরুর কয়েক দিন পর তাকে লাইফ সাপোর্ট দেয়া হয়। পরবর্তীতে স্বাভাবিক নিয়মে শ্বাস নিতে পারলে লাইফসাপোর্ট খুলে দেয়া হলেও অবস্থার তেমন কোনো উন্নতি না হওয়ায় চার দিন আগে আবারো তাকে লাইফ সাপোর্ট দেয়া হয়। এখনো সেভাবেই আছেন তিনি। তবে অবস্থার উন্নতি বা অবনতি না হওয়ায় দেশের বাইরে নিয়ে চিকিৎসার করানোর দাবি জানাচ্ছে তার পরিবার। গতকাল শুক্রবার অসুস্থ এই অভিনেতার শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিতে হাসপাতালে যান প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী বিপ্লব বড়ুয়া, জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের জাতীয় সমন্বয়ক সামন্ত লাল সেন, সংগীতশিল্পী রফিকুল আলম, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার। এ ব্যাপারে ডা. সামন্ত লাল সেন বলেন, এ টি এম শামসুজ্জামান আমার খুবই কাছের লোক। দীর্ঘদিন ধরে খ্যাতিমান এই অভিনেতা আমার পারিবারিক বন্ধু। এতদিন ধরে তার চিকিৎসা চললেও বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা ভালো না, খারাপও না। বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন সমস্যায় ভুগছেন তিনি।

এ টি এম শামসুজ্জামানের কন্যা কোয়েল আহমেদ সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, আমরা মনে করছি, উন্নত চিকিৎসার জন্য বাবাকে বিদেশে নিতে পারলে ভালো হতো। এখনো বাবা যে অবস্থায় আছেন, তাকে যত তাড়াতাড়ি নিয়ে যাওয়া যায়, ততই ভালো। সন্তান হিসেবে বাবাকে উন্নত চিকিৎসাসেবা দিতে পারলে আমরা শান্তি পাব। শুনেছি বাবাকে দেশের বাইরে নেয়ার জন্য সাংস্কৃতিক অঙ্গনের কয়েকজন উদ্যোগ নিয়েছেন। তারা প্রধানমন্ত্রীর দেশে ফেরার জন্য অপেক্ষা করছেন।

এদিকে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, এ টি এম শামসুজ্জামানের ফুসফুস এখন খুবই দুর্বল। তাই কোনো ঝুঁকি নিতে চান না তারা। অধ্যাপক মতিউল ইসলাম তার চিকিৎসা তত্ত্বাবধান করছেন।  সম্পাদনা: জামাল

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]