• প্রচ্ছদ » আমাদের বাংলাদেশ »  চট্টগ্রাম কাস্টমসে নয় মাসে দশ হাজার কোটি টাকার রাজস্বঘাটতি, বিষয়টি উদ্বেগজনক বলছে বিশেষজ্ঞরা


 চট্টগ্রাম কাস্টমসে নয় মাসে দশ হাজার কোটি টাকার রাজস্বঘাটতি, বিষয়টি উদ্বেগজনক বলছে বিশেষজ্ঞরা

আমাদের নতুন সময় : 13/05/2019

আলীউর রহমান : লক্ষ্যমাত্রার প্রায় ২৩ ভাগ রাজস্ব আয় কমে যাওয়া উদ্বেগজনক বলছে, বিশেষজ্ঞরা। পণ্য আমদানি কমে যাওয়া, বন্ড সুবিধার অপব্যবহার, আন্ডার ইনভয়েসিং এবং মিথ্যা ঘোষণায় পণ্য আমদানির মাধ্যমে কোটি কোটি টাকার শুল্ক ফাঁকি দেয়ার ঘটনা রাজস্ব আয়ে এই ধসের সৃষ্টি করেছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ড সূত্রে জানাযায়, চলতি ২০১৮-১৯ অর্থবছরে চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউসে রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয় ৫৭ হাজার ৪৬২ কোটি টাকা। এ হিসেবকে সামনে রেখে অর্থবছরের প্রথম নয় মাসের রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৪১ হাজার ৯শ’ ৫৭.২০ কোটি টাকা। এ লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে ৯ মাসে অর্জিত হয়েছে ৩২ হাজার ৪শ’ ১৯.০৮ কোটি টাকা। এসময়ের মধ্যে রাজস্ব ঘাটতি দাঁড়িয়েছে ৯ হাজার ৫শ’ ৩৮.১২ কোটি টাকা। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে রাজস্ব আদায়ের পার্থক্য ২২.৭৩ ভাগ কম। গত অর্থবছরে (২০১৭-১৮) চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারিত ছিল ৪৮ হাজার ৮৬৫ কোটি টাকা, পরে সারাদেশেরসব কাস্টমস, ভ্যাট ও আয়কর স্টেশনগুলোর মতো চট্টগ্রাম কাস্টমসেও লক্ষ্যমাত্রা কমানো হয়। দেশের খ্যাতিমান অর্থনীতিবিদ প্রফেসর ড. মইনুল ইসলাম বলেন, মিথ্যা ঘোষণা একটি বড় সমস্যা। এই সমস্যা বহুদিন ধরে চলে আসছে। তবে কাস্টমস কর্মকর্তা কর্মচারীদের দুর্নীতির কারণেই মিথ্যা ঘোষণা টিকে আছে।  কাস্টমস কর্মকর্তাদের অগোচরে কিছু হচ্ছে এটা ভাবার কোন কারণ নেই বলে তিনি মন্তব্য করেন। সম্পাদনা : বাহাউদ্দিন




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]