মন্ত্রি পরিষদ সচিবসহ বেশ কিছু পরিবর্তন জুনে অতিরিক্ত সচিব পদে ৪০০ জন কর্মকর্তার তালিকা

আমাদের নতুন সময় : 13/05/2019

বিশ্বজিৎ দত্ত : মন্ত্রী পরিষদ সচিবসহ বেশ কিছু সচিব পদে পরিবর্তন হচ্ছে জুনে। এই সময়ে অতিরিক্ত সচিব পদে পদোন্নতি দিতে ৪০০ জন কর্মকর্তার নামের তালিকা বিবেচনায় নেয়া হচ্ছে। এজন্য নিয়মিত ব্যাচ হিসেবে ১১তম ব্যাচের পদোন্নতিযোগ্য যুগ্মসচিবদের প্রোফাইল পর্যালোচনা ছাড়াও অতীতে পদোন্নতি না পাওয়া লেফটআউট কর্মকর্তাদের এক বিশাল বহরকে বিবেচনায় নেবে এসএসবি (সুপিরিয়র সিলেকশন বোর্ড)।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, আগামী জুনে প্রত্যাশিত এ পদোন্নতি হতে পারে। অতিরিক্ত সচিব ছাড়াও যুগ্মসচিব পদে ১৭তম ব্যাচ এবং উপসচিব পদে ২৭তম ব্যাচকে পদোন্নতি দিতে প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহের কাজ চলছে। ব্যাচভিত্তিক জ্যেষ্ঠতার শৃঙ্খলা ধরে রাখতে ১৮তম ব্যাচকে এ যাত্রায় যুগ্মসচিব পদে পদোন্নতি দেয়া না হলেও কম সময়ের ব্যবধানে তাদের জন্যও সুখবর অপেক্ষা করছে।

এদিকে নানা কারণে পদোন্নতিবঞ্চিতদের মধ্যে লেফটআউট সিনিয়র ব্যাচের কর্মকর্তারা তাদের বিষয়টি মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে বিবেচনায় নেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী ও এসএসবি’র সদস্যদের কাছে আবেদন জানিয়েছেন। যাদের মধ্যে ৮৪ ও ৮৫ ব্যাচের কয়েকজন কর্মকর্তা বলেন, তাদের চাকরি আছে ৬ মাস থেকে বড়জোর দেড় বছর। তাই এই বিদায়বেলায় তৃতীয় মেয়াদে থাকা আওয়ামী লীগ সরকার নিশ্চয় কিছু একটা করবে।

যদিও সচিবের খাতায় এখনও ৮৬ ব্যাচের কর্মকর্তাদের নাম অন্তর্ভুক্ত হয়নি। ২০১৯ সালে ২০৬ জন এবং ২০২০ সালে ১৮২ জন কর্মকর্তা অবসরে যাবেন। এদের মধ্যে ২০১৯ সালে ১৯৮২ নিয়মিত ব্যাচের ৬ জন, ৮২ বিশেষ ব্যাচের ৭ জন, ৮৪ ব্যাচের ৭০ জন, ৮৫ ব্যাচের ৯৫ জন এবং ৮৬ ব্যাচের রয়েছে ২৮ জন। আগামী বছর ৮২ নিয়মিত ব্যাচের ১ জন, ৮৪ ব্যাচের ৪১ জন, ৮৫ ব্যাচের ১০১ জন এবং ৮৬ ব্যাচ থেকে অবসরে যাবে আরও ৩৯ জন। এর ফলে প্রশাসনে বড় পদশূন্যতা তৈরি হবে। এ সুবাদে আগামী বছর থেকে ৮৬ ব্যাচ ছাড়াও ধাপে ধাপে ৯ম, ১০ম ও ১১তম ব্যাচ থেকে সচিব পদে পদায়ন করা কঠিন কিছু হবে না। মূলত আগামী ২-৩ বছরের মধ্যে প্রশাসনে বড় তিনটি ব্যাচের বেশির ভাগ কর্মকর্তা অবসরে চলে যাবেন।

সূত্র জানায়, অতিরিক্ত সচিব পদে পদোন্নতি দিতে প্রায় ৪শ’ কর্মকর্তাকে বিবেচনায় নেয়া হবে। এর মধ্যে নিয়মিত ব্যাচ হিসেবে ১১তম ব্যাচকে বিবেচনায় নেয়া হচ্ছে। এ ব্যাচের ১২৭ জন কর্মকর্তা যুগ্মসচিব হন ২০১৬ সালের ২৭ নভেম্বর। যুগ্মসচিব পদে ২ বছর চাকরি করলে অতিরিক্ত সচিব পদে পদোন্নতির যোগ্যতা অর্জিত হয়। ইতিমধ্যে তাদের সে সময়সীমা পার হয়েছে। সূত্র বলছে, অতিরিক্ত সচিব পদে পদোন্নতি দিতে ৩৯৩ জন কর্মকর্তাকে বিবেচনায় নেয়া হতে পারে। সূত্র বলছে, এর মধ্যে বিবেচনার তালিকায় ১১তম ব্যাচের পদোন্নতিযোগ্য কর্মকর্তার সংখ্যা ১২৬ থেকে ১৩০-এর মধ্যে সীমাবদ্ধ হয়ে পড়তে পারে।

অবশিষ্ট ২৬৭ জন কর্মকর্তার নাম বিবেচ্য তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে লেফটআউট (পূর্বে পদোন্নতি না পাওয়া) হিসেবে।

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]