• প্রচ্ছদ » » মেয়েদের মধ্যে হিজাব পড়ার প্রবণতা বেড়ে গেছে?


মেয়েদের মধ্যে হিজাব পড়ার প্রবণতা বেড়ে গেছে?

আমাদের নতুন সময় : 13/05/2019

সৈয়দ সাইফ

মেয়েদের মধ্যে পর্দার নামে হিজাব পড়ার প্রবণতা বেড়ে গেছে। তারা রং-বেরঙের হিজাব পরে, সেই হিজাব ছাপিয়ে নিজেকে এমনভাবে সুসজ্জিত করে রাখে, দেখে মনে হয় পর্দা তার উদ্দেশ্য নয়, উদ্দেশ্য ফ্যাশন করা, নিজেকে আরো আকর্ষণীয় করা। আর যে বোরকাগুলো পরে তা শাড়ি এবং সালোয়ার কামিজের চেয়েও বেশি করে শরীরের বাঁক ফুটিয়ে তুলে! অন্যদিকে কিছু নারী আছে যারা হিজাব পড়ে না তারাও অতি আধুনিকতার নামে নিজেদের অশ্লীলভাবে উপস্থাপন করে। উগ্রতা কিংবা অশ্লীলতা এবং হিজাবের নির্বোধ অনুসরণ দুটোই মেয়েদের ব্যক্তিত্বহীনতার পরিচায়ক। হিজাব কখনো সামাজিক অস্থিরতা কমায়নি। হিজাবের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে অস্থিরতার মাত্রাও যেন বেড়ে গেছে। আবার হিজাববিহীনরাও শালীনতার মধ্যে থাকছেনা। উভয়পক্ষের মাঝেই উগ্রতা কাজ করছে।
আসলে সামাজিক অস্থিরতার মনস্তাত্তি¡ক কারণ অনেক ব্যাপক ও বিশ্লেষণযোগ্য। হিজাব কখনো সামাজিক অস্থিরতা থেকে রেহাই দিতে পারেনি। আবার উগ্র আধুনিকতাও সমাজকে অস্থিরতা থেকে রেহাই দিতে পারেনি। তবে বিন¤্র শ্রদ্ধা সুশিক্ষিত-স্বশিক্ষিত সেসব নারীদের যারা তাদের পোশাকে মার্জিত, কথায় ও কাজে শালীন, যারা বুঝেশোনেই ধর্মকে লালন এবং ধারণ করে। এরাই সমাজে শুভ্রতা এবং দিক-নির্দেশনা ছড়ায়। এদের ব্যক্তিত্ব সত্যিই অনুসরণ করার মতো। কারণ তারা জানেন, তাদের জীবনের স্বরূপ কি। তারা জীবনের কাছে কি চায়। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]