২০ দলীয় জোটের বৈঠক আজ, যাবেন না আন্দালিভ পার্থ দুই জোটের ভাঙন ঠেকাতে বিএনপির মরিয়া উদ্যোগ

আমাদের নতুন সময় : 13/05/2019

শাহানুজ্জামান টিটু : প্রায় চার মাস পর ২০ দলীয় জোটের বৈঠক বসছে আজ বিকাল ৪টায় গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে। বিএনপির পক্ষ থেকে জোটে নেতাদের ইফতারের দাওয়াত দেয়া হয়েছে। আজকের বৈঠকে জোটের সিদ্ধান্তের বাইরে কি কারণে এমপিদের শপথ নিতে হয়েছে, কেনো আগের সিদ্ধান্ত পরির্বতন করতে হয়েছেÑএ বিষয়ে ব্যাখ্যা দেবে বিএনপি। এছাড়া ভবিষ্যতে জোটকে কিভাবে আরো বেশী সক্রিয় রাখা যায় এ বিষয়ে দলগুলোর মতামত বা পরামর্শ নেয়া হবে। গত কয়েকদিন ধরে বিএনপি থেকে বলা হচ্ছিলো জোটের বৈঠকে ভুল বোঝাবুঝির অবসান হবে। এই বৈঠকে যোগ দেবে না জোট ছেড়ে যাওয়া বিজেপি। এছাড়া জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শরীক দলগুলোর মধ্যেও ভুল বোঝাবুঝি নিরসনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জোটের পাশাপাশি ঐক্যফ্রন্টের দলগুলোর নেতাদের সঙ্গে আলোচনা অব্যাহত রেখেছেন।

বৈঠকে অংশগ্রহণ বিষয়ে বিজেপি চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আন্দালিভ পার্থ জানান, জোট ছেড়েছি। একারণে জোটের মিটিংয়ে যাচ্ছি না। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মিটিং নয় যদি ব্যক্তিগতভাবে বিএনপি মহাসচিব কিংবা বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী চায়ের আমন্ত্রণ জানান আমি সেখানে যাবো। কারণ রাজনৈতিক দলের নেতা হিসেবে এধরনের আমন্ত্রণে যেতে আপত্তি নেই।

২৩ মের মধ্যে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ছাড়ার আল্টিমেটাম দিয়েছিলো লেবার পার্টি। দলের নেতা ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান জানান, তিনি জোটের বৈঠকে যোগ দেবেন। ইতিমধ্যে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সঙ্গে তার ঘণ্টাব্যাপী কথা হয়েছে। তিনি গঠনমূলক কথা বলেছেন। আমি তার কথায় সন্তুষ্ট। একারণে জোটের বৈঠকে যাবো। মহাসচিবের সঙ্গে কি ধরনের আলোচনা হয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তিনি আমাকে বলেছেন বিএনপিকে আল্টিমেটাম দিতে পারেন কিনা। এবিষয়ে উনি জানতে চেয়েছেন। আমি আমার দলের অবস্থান তার কাছে ব্যাখ্যা করেছি। বিএনপি ঐক্যফ্রন্ট না ছাড়লে আপনি জোট ছাড়ছেন কিনা জবাব ইরান বলেন, ২৩ মে আমাদের দলের সভা রয়েছে। ওই সভায় জোটের বৈঠক নিয়ে আলোচনা হবে। যদি দলের সবাই যদি মনে করে আমাদের জোটে থাকা দরকার তাহলে থাকবো। আর না হলে তখন জোট ছাড়বো।

ইরান বলেন, ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট বঙ্গবন্ধুর শতবাষির্কী পালন করবে। জোটের সভায় তার এই বক্তব্য নিয়ে প্রতিবাদ জানাবো। কারণ আমরা তো বিএনপির সঙ্গে জোট করেছি। ঐক্যফ্রন্টের জোটে বিএনপি। বিএনপি কি এই শতবাষির্কী পালন করবে? তাহলে বিএনপি সঙ্গে থেকে আওয়ামী লীগ করবো কেন? সরাসরি করবো।

২০ দলীয় জোটের সমন্বয়ক নজরুল ইসলাম খান বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আহ্বানে এবং তার নেতৃত্বে যে ২০ দলীয় জোট গঠিত হয়েছে তা অবশ্যই অটুট থাকবে। বর্তমানে জোট নেতা খালেদা জিয়া একটি মিথ্যা মামলায় সরকারের প্রতিহিংসার শিকার হয়ে কারাগারে আছেন। তাকে মুক্ত করতে আমাদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। নিজেদের মান-অভিমান থাকতেই পারে, সেসব ভুলে আমরা ঐক্যবদ্ধ থেকে গণতন্ত্রের প্রতীক খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে দেশের গণতন্ত্রকে পুনরুদ্ধার করবো। খুব শিগগির খালেদা জিয়ার মুক্তির লক্ষ্যে জোটের পক্ষ থেকে বৃহত্তর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

বিএনপি এবং জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের এমপিদের শপথ ইস্যুতে সরকার বিরোধী শিবিরে হঠাৎ ছন্দ পতন শুরু হয়। এজন্য ২০ দলীয় জোটের কয়েকটি দল বিএনপিকে দায়ী করে আসছে। জোট ছেড়েছে বিজেপি। জোট ছাড়ার আল্টিমেটাম দিয়েছে লেবার পার্টি। এরপর টনক নড়ে বিএনপির। জোটের ভাঙন ঠেকাতে উদ্যোগ নেয় দলটি। তারেক রহমান নিজেই জড়িত হন এই প্রক্রিয়ায়। কথা বলেন ব্যারিস্টার আন্দালিভ পার্থর সঙ্গে। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কথা বলেন জোটের অন্যদলগুলোর সঙ্গে। সম্পাদনা : রেজাউল আহসান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]