ক্যাপ্টেন কুকের অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার ২৫০ বছর আগের তানজানিয়ান মুদ্রা উদ্ধার

আমাদের নতুন সময় : 14/05/2019

সুস্মিতা সিকদার : অস্ট্রেলিয়ার সৈকতে গত বছর একটি মুদ্রা পাওয়া যায়। ধারণা করা হচ্ছে, ওই মুদ্রাটি ১ হাজার বছরের পুরনো এবং এটি তানজানিয়ার মুদ্রা। আরো মনে করা হচ্ছে, ১৫১৫ সালে পর্তুগীজ নাবিকরা অস্ট্রেলিয়ায় এই মুদ্রা নিয়ে আসে । এই মুদ্রার সন্ধানের পর অনুমান করা হচ্ছে, ক্যাপ্টেন কুক অস্ট্রেলিয়ায় পদার্পণ করার ২৫০ বছর আগে এ অঞ্চলে এসেছেন তানজানিয়ানরা। তবে ঠিক কিভাবে তানজানিয়ার মুদ্রা অস্ট্রেলিয়ায় পৌঁছেছে সেটি এখনও পরিস্কার নয় ।  ক্যাপ্টেন জেমস কুক ১৭৭০ সালে সিডনি পৌঁছান এবং অস্ট্রেলিয়াকে বৃটিশ কলোনি ঘোষণা করেন। ডেইলি মেইল

 

প্রতœতত্ত্ববিদ মাইক হেরমেস এই মুদ্রাটি ওয়েলস সমুদ্র সৈকতে দেখতে পান। তিনি বলেন, আমরা মুদ্রাটি ওজন করে দেখেছি। এর কোন অন্তর্নিহিত মূল্য নেই। এই ধরণের মুদ্রা আরব উপসাগরেও পাওয়া গিয়েছে। মাউরি নামে বিমান বাহিনীর এক কর্মকর্তা ১৯৪৪ সালে ৫টি কিলওয়া মুদ্রার সন্ধান পান। কিলওয়া সিডনি দ্বীপের বাইরে অবস্থিত। এছাড়া তিনি ৪টি নেদারল্যা-ের মুদ্রা পান। তিনি ১৯৮৩ সালে আফ্রিকান মুদ্রা সিডনি জাদুঘরে দেয়ার আগে কয়েক দশক বিষয়টি গোপন রাখেন।

 

এ সকল মুদ্রা প্রাপ্তি থেকে এই সম্ভাবনা উড়িয়ে দেয়া যায় না, পর্তুগালই হলো প্রথম ইউরোপীয় শক্তি, যারা প্রথম অস্ট্রেলিয়ায় পৌঁছেছিলো। এছাড়া আরো  অনুমান করা  যেতে পারে কিলওয়া ব্যবসায়ীরা আফ্রিকা থেকে এই মুদ্রা সঙ্গে করে নিয়ে আসতে পারে। অথবা এই অঞ্চলে পর্তুগীজ জাহাজ ডুবে গিয়ে থাকতে পারে।  গবেষকরা জানান, ১৫০০ সালে সমুদ্র পথে কিলওয়া থেকে পূর্ব আফ্রিকায় এবং সেখান থেকে ওমানে যাওয়া যেতো। এছাড়া ভারত, মালয়েশিয়া এবং ইন্দোনেশিয়ায় সমুদ্র পথে চলাচল করা যেতো।  প্রফেসর ইয়ান ম্যাকলটস ২০১৩ সালে বলেন, ওয়েলস দ্বীপে একটি রক আর্ট পাওয়া যায় যাতে ইউরোপীয় নাবিকদের ছবি খোদাই করা আছে।  এই সকল প্রতœ নিদর্শন বিচার-বিশ্লেষণ করে হয়তো এক নতুন ইতিহাস উন্মোচিত হবে বলে গবেষকরা মনে করেন। সম্পাদনা: লিহান লিমা




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]