পিতা-মাতার ভরণপোষণের আইনে পরিবর্তন জরুরি, বললেন নূর খান লিটন

আমাদের নতুন সময় : 14/05/2019

ফাতেমা ইসলাম : পিতা-মাতার ভরণপোষণ আইন অনুযায়ী, বাংলাদেশের সামাজিক বাস্তবতায় সন্তানের বিরুদ্ধে বাবা-মায়ের মামলা করার ঘটনা বিরল। তাহলে প্রশ্ন আসে, এ আইনটি কার্যবর হবে কিভাবে? ২০১৩ সালে পিতা-মাতার ভরণপোষণ বিষয়ক আইন পাস করে সরকার। আইন অনুযায়ী সক্ষম সন্তানরা বাবা-মায়ের ভরণপোষণ প্রদান করতে আইনগতভাবে বাধ্য থাকবে।

মানবাধিকার কর্মী এবং আইন ও সালিশ কেন্দ্রের সাবেক নির্বাহী পরিচালক নূর খান লিটন সোমবার ডয়েচে ভেলেকে বলেন, ‘‘আইনটি কার্যকর করার ক্ষেত্রে এই আইনের ভেতরেই বাধা আছে। আর তা হলো পিতা-মাতা ছাড়া কেউ অভিযোগ করলে তা আমলে না নেয়ার বিধান। বাংলাদেশে যে সামাজিক ব্যবস্থা এবং মূল্যবোধ রয়েছে তাতে ভরণপোষণের মত ঘটনায় সাধারণত বাবা-মা সন্তানের বিরুদ্ধে মামলা করেন না বা করবেন না। আর ভরণপোষণের প্রশ্ন সাধারণত তখনই বড় হয়ে দেখা দেয়, যখন বাবা-মা শেষ বয়সে কর্মক্ষমতা হারান ও তাদের জীবন যাপনের কোনো উপায় থাকে না। এ ক্ষেত্রে বৃদ্ধ বয়সে তাদের পক্ষে মামলা করা কতটা সম্ভব তাও ভেবে দেখা প্রয়োজন।’’

তিনি বলেন, ‘‘বিষয়টি সুরাহার জন্য সামাজিক উদ্যোগ নেয়া প্রয়োজন। সরকারের বিভিন্ন সংস্থাকে এ বিষয়ে উদ্যোগী হতে হবে। বাবা-মা ছাড়াও অন্য কারো অভিযোগ বিবেচনায় নিয়ে ও তদন্ত করে আদালত বা পুলিশ স্বপ্রণোদিত হয়ে যেন ব্যবস্থা নিতে পারে সে বিধান করা প্রয়োজন। তা না হলে এই আইনটি খুব বেশি কাজে আসবেনা।’’ সম্পাদনা : আবদুল অদুদ




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]