ভূমধ্যসাগরে হতাহত বাংলাদেশিরা লিবিয়ায় বন্দি ছিলেন

আমাদের নতুন সময় : 14/05/2019

আশরাফ রাজু : লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার পথে ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবিতে ফেঞ্চুগঞ্জের চার যুবককে দাললরা প্রথমে সিলেট থেকে চট্রগ্রাম পাঠায়। সেখান থেকে ভারত। ভারতের বেশ কয়েক রাজ্য ঘুরিয়ে তাদের পাঠানো হয় শ্রীলংকা। সেখান থেকে তাদের নিয়ে যাওয়া হয় লিবিয়ায়। লিবিয়ায় জঙ্গলের মধ্যে ছোট্ট একটি ঘরে বন্দি করে রাখা হয় তারাসহ আরও ৮০ জনকে। সেখানে চলে মানবেতর জীবন যাপন।

নিহতদের পরিবারের সদস্যদের সাথে আলাপ করে এসব তথ্য জানা গেছে। শুক্রবার তিউনেশিয়া উপকূলে নৌকা ডুবিতে ফেঞ্চুগঞ্জের যে চারজন প্রাণ হারিয়েছেন তারা উপজেলার ৪ নং উওর কুশিয়ারা ইউনিয়নের মুহিদপুর গ্রামের বাসিন্দা। নিহত বেলাল আহমদ, আব্দুল আজিজ,  আহমদ হোসেন ও লিটন মিয়া সম্পর্কে চাচা ভাতিজা ও ভাগিনা।

আজিজের পিতা ও বেলাল আহমদের ভাই হারুন মিয়া বলেন, আমরা বারবার ইয়াহইয়া ট্রাভেলসের স্বতাধীকারী এনামের সাথে যোগাযোগ করি। এনাম সবকিছু দেখছেন, খোঁজখবর রাখছেন বলে ফিরিয়ে দেন। কিন্তু তাতেও কোনো সুফল মিলেনি। হারুন মিয়া আরও বলেন, তাদের খাবার দেওয়ার জন্য  এনাম আহমদকে আরও সোয়া লক্ষ টাকা দেই। তারপরও আমার ছেলেদের খাবার দেয়নি। মোবাইল ফোন কেনার জন্যও কয়েকদিন আগে ছেলেকে টাকা পাঠান বলে জানান হারুন। এভাবে কেটে যায় পাঁচ মাস। পাঁচ মাস পর গত বৃহস্পতিবার হারুন মিয়া জানতে পারেন নৌকা করে তার ছেলেসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা ইতালির পথে ছেড়ে দিচ্ছে। তিনি বলেন, এ খবর শোনামাত্র মনে হল আমার পা চলছে না। একি অবস্থা বাড়ির সিরাজ মিয়ার ঘরে। সেখানেও চলছে শোকের মাতম। সিরাজ মিয়া বলেন, এনাম আমার ছেলেকে মেরে ফেলেছে। যেভাবে কথা ছিল সেভাবে কথা রাখেনি। ওই দুর্ঘটনায় ভাগ্যক্রমে বেঁচে যান হারূন মিয়ার ভাই বেলাল আহমদ। তিনিই বেঁচে গিয়ে ফোনে অন্যদের মারা যাওয়ার খবর জানান। এছাড়া, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার মানিকোনা হাওরতলার গ্রামের আফজাল একই দুর্ঘটনায় মারা যান বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে সিলেট নগরীর এহিয়া ট্র্যাভেলসের সত্ত্বাধিকারী এনাম আহমদের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাঁর মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। তাঁর ট্র্যাভলেসটি রোববার দিনভর তালাবদ্ধ ছিলো। সম্পাদনা : ওমর ফারুক




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]