গতানুগতিক অভিযোগ করলেই হবে না, বললো আওয়ামী লীগ

আমাদের নতুন সময় : 15/05/2019

সমীরণ রায় : সম্মেলনের এক বছর পর বিবাহিত, চাকরিজীবী, ৩০ বছরের বেশি বয়স, মাদক ব্যবসায়ী, সন্ত্রাসী, চিহ্নিত চাঁদাবাজ, সাধারণ সম্পাদকের জেলাকে প্রাধান্য দিয়ে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের ৩০১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন পদবঞ্চিতরা। তবে ¯্রােতে গা ভাসিয়ে শুধু অভিযোগ করলেই হবে না এবং এ ঘটনাকে ছোট ও সাধারণ বলে মনে করেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা।

এ সম্পর্কে আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ বলেন, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির ঘোষণা নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যানটিনে যা ঘটেছে, তা একটি ছোট সাধারণ ঘটনা। ছাত্রলীগ একটি বৃহৎ সংগঠন, এখানে হাজার হাজার নেতা-কর্মী রয়েছেন। বয়সে তরুণ হওয়ায় তাদের প্রতিক্রিয়াটা একটু ভিন্ন। যোগ্য নেতারা সবাই পদ প্রত্যাশা করেন। সবাইকে তো দেয়া যায় না। কিছু ব্যক্তি অসন্তুষ্ট হতেই পারে। এ রকম একটুআধটু ঝামেলা হতেই পারে। ছাত্রলীগের যে কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে, কমিটির বিরুদ্ধে কেউ অভিযোগ করতেই পারেন। তবে অভিযোগ দিলেই হবেনা, সত্যতা পেতে হবে। সত্যতা পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান বলেন, ছাত্রলীগের যে কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে, এখানে তেমন কোনো অসঙ্গতি নেই। কিন্ত কমিটির বিরুদ্ধে যারা অভিযোগ তুলেছেন, তারা সুনির্দিষ্ট কোনো অভিযোগ প্রমাণ করতে পারলে নিশ্চই ব্যবস্থা নেয়া হবে। প্রয়োজনে তদন্ত হবে, তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত হলেই ব্যবস্থা। পদ না পাওয়ার বেদনায় দু’একটা ঘটনা ঘটাতে পারে।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য আক্তারুজ্জামান আমাদের নতুন সময়কে বলেন, কোনো অভিযোগ থাকে, তা খতিয়ে দেখা যেতে পারে। আর মধুর ক্যান্টিনে যে ঘটনা ঘটেছে তা নিন্দনীয় হলেও স্বাভাবিক ব্যাপার। তবে এমন ঘটনা না ঘটলেই ভালো হতো। সম্পাদনা : রেজাউল আহসান

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]