• প্রচ্ছদ » আমাদের বাংলাদেশ » কৃষকের কাছ থেকে সরাসরি ধান ক্রয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ ও শস্যবীমা স্থায়ীভাবে চালুর সুপারিশ অর্থমন্ত্রীর হাতে


কৃষকের কাছ থেকে সরাসরি ধান ক্রয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ ও শস্যবীমা স্থায়ীভাবে চালুর সুপারিশ অর্থমন্ত্রীর হাতে

আমাদের নতুন সময় : 20/05/2019

সোহেল রহমান : কৃষকের কাছ থেকে সরাসরি ন্যায্য মূল্যে ধান ক্রয়ে আরও বাস্তবমুখী প্রদক্ষেপ গ্রহণ এবং পরিবর্তিত জলবায়ু মোকাবিলা করে কৃষিতে বিনিয়োগ বাড়াতে শস্যবীমা স্থায়ীভাবে চালু করার সুপারিশ করেছেন কৃষি উন্নয়ন ও গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব শাইখ সিরাজ। আসন্ন জাতীয় বাজেটকে সামনে রেখে কৃষি ও এর উপখাতগুলো সংশ্লিষ্ট একগুচ্ছ সুপারিশমালায় তিনি এ সুপারিশ করেন। গতকাল রোববার শেরেবাংলা নগরস্থ অর্থমন্ত্রীর কার্যালয়ে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল-এর হাতে এসব সুপারিশমালা তুলে দেন দেন তিনি।

এবার সুপারিশমালায় যেসব বিষয়ে বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়েছে, সেগুলো হচ্ছে- ধানের ন্যায্যমূল্য প্রাপ্তির ক্ষেত্রে সরকারের সরাসরি ন্যায্য মূল্যে ধান ক্রয়ের ব্যাপারে উদ্যোগকে আরো বাস্তবমুখী প্রয়োগ করা; পরিবর্তিত জলবায়ু মোকাবেলা করে কৃষিতে বিনিয়োগ বাড়াতে শস্যবীমা স্থায়ীভাবে চালু করা; দেশে ভরাট হয়ে যাওয়া নদী ও খাল খননের উদ্যোগ গ্রহণ করা; কৃষিপণ্যের উন্নত ও আধুনিক বাজার ব্যবস্থা চালু করা; সরকারের বীজ প্রত্যয়ন এজেন্সির কার্যক্রমকে আরো গতিশীল করা এবং বীজের মান নিশ্চিত করা; কীটনাশক আমদানি, বাজারজাতকরণ ও ব্যবহারের ক্ষেত্রে সরকারের সুনির্দিষ্ট নীতিমালা ও কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ; কৃষির যান্ত্রিকীকরণে কৃষককে আরও অভ্যস্ত করে তোলা এবং আমদানিকৃত কৃষি যন্ত্রপাতির ওপর ভর্তুকি ও শুল্কমুক্ত সুবিধা অব্যাহত রাখা; পোল্ট্রি, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতে প্রযুক্তি নির্ভরতা বাড়ানো; বীমা ব্যবস্থা চালু করা এবং এ খাতের বিদ্যুৎ বিল ও ঋণ প্রদানে কৃষি খাতের অনুরূপ সুযোগ-সুবিধা প্রদান করা; ক্ষুদ্র খামারিদেরে বাঁচাতে পোল্ট্রি নীতিমালা মাঠ পর্যায়ে কঠোরভাবে বাস্তবায়ন করা ইত্যাদি।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল প্রান্তিক কৃষক ও খামারিদের দাবি, প্রত্যাশা ও চাহিদা রাষ্ট্রের সামনে উপস্থাপনের এই কার্যক্রমটি অত্যন্ত অর্থবহ ও কার্যকর একটি আয়োজন হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, এর মধ্য দিয়ে কৃষক ও সরকারের নীতি নির্ধারকের মধ্যে একটি যোগসূত্র তৈরি করে। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার বরাবরই কৃষির প্রতি সর্বোচ্চ আন্তরিকতা দেখিয়ে আসছে। আগামীতেও তা অব্যাহত থাকবে।

উল্লেখ্য, ২০০৬ সাল থেকে জাতীয় বাজেট সম্পর্কে কৃষককে অধিকার সচেতন করে তোলা এবং বরাদ্দ, প্রত্যাশা ও চাহিদা নিরূপণের জন্য তৃণমূল পর্যায়ে প্রাক-বাজেট আলোচনার আয়োজন করে আসছেন উন্নয়ন সাংবাদিক শাইখ সিরাজ। এ ধারাবাহিকতায় এবার দেশের পাঁচটি (শরিয়তপুর, বাগেরহাট, কক্সবাজার, যশোর ও নাটোর) জেলার প্রায় ২২ হাজার কৃষকের সঙ্গে খোলা প্রাঙ্গণে কৃষির সমস্যা, সংকট, প্রত্যাশা, দাবি ও চাহিদা নিয়ে আলোচনা করা হয়। এসব আলোচনায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যথাক্রমে শরিয়তপুরে পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম, বাগেরহাটে পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান, কক্সবাজার সদরে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, যশোরের মনিরামপুরে পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য এবং নাটোরের নলডাঙ্গায় সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]