রূপপুর বিদ্যুৎ প্রকল্পের বেতনভাতার বিষয়ে ব্যাখ্যা দিলো মন্ত্রণালয়

আমাদের নতুন সময় : 21/05/2019

আনিস তপন : রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র প্রকল্পের গাড়ি চালক ও বার্বুচির মাসিক বেতন সংক্রান্ত ভুল তথ্য প্রচারণার ব্যাখা দিয়েছে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়। সোমবার বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এ ধরণের অপপ্রচার নিতান্তই কল্পনাপ্রসুত এবং প্রকল্পের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করাসহ বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ এই প্রকল্প সম্পর্কে জণগণের মাধ্যে ভুল বার্তা দিতে পারে। তাই জনগণের বিভ্রান্তি দূর করতে ব্যাখ্যা দিয়েছে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়।

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্প ও নিউক্লিয়ার পাওয়ার প্লান্ট কোম্পানী বাংলাদেশ লিমিটেডের (এনপিসিবিএল) কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা সম্পর্কে প্রকাশিত সংবাদের বিষয়ে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের ব্যাখ্যায় বলা হয়, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পে এখন পর্যন্ত যে সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী কাজ করছেন তারা বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের নিয়মিত কর্মকর্তা-কর্মচারী। সুষ্ঠুভাবে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের স্বার্থে এসব কর্মকর্তা-কর্মচারিকে বৃহৎ এই প্রকল্পে সংযুক্ত করা হয়েছে। তারা সরকার নির্ধারিত বেতনক্রম অনুযায়ী বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন থেকে বেতন-ভাতা গ্রহণ করছেন। তাছাড়া নিউক্লিয়ার পাওয়ার প্লান্ট কোম্পানী বাংলাদেশ লিমিটেডের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন কাঠামো সমধর্মী অন্যান্য পাবলিক লিমিটেড কোম্পানীর বেতন কাঠামো পর্যালোচনা করে কোম্পানীর বোর্ডের মাধ্যমে নির্ধারণ করা হয়েছে। এই বোর্ডে পরিচালক হিসেবে সরকারের অর্থ মন্ত্রণালয় এবং আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন সংস্থা/মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা রয়েছেন।

এছাড়াও রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক (পিডি), উপ-প্রকল্প পরিচালক (ডিপিডি) কেউই প্রকল্প থেকে বেতন-ভাতা গ্রহণ করেন না। তারা বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের নিয়মিত কর্মকর্তা এবং তারা বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন থেকেই সরকার নির্ধারিত স্কেলে বেতন-ভাতা পেয়ে থাকেন। প্রকল্প পরিচালক একই সঙ্গে কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক হওয়ায় কোম্পানি থেকে আলাদাভাবে কোন বেতন-ভাতা গ্রহণ করেন না। তাছাড়া, একই কর্মকর্তার একাধিক সংস্থা থেকে বেতন-ভাতা গ্রহণ করার কোনো সুযোগ নেই। তাছাড়া কোম্পানীতে এখন পর্যন্ত কোনো গাড়িচালক বা বাবুর্চি নিয়োগ করা হয়নি। তাই তাদের বেতন-ভাতা দেওয়ার প্রশ্নও অবান্তর। তবে ভবিষ্যতে নিয়োগ করা হলে কোম্পানীর বেতন কাঠামো অনুযায়ী গাড়িচালক এবং বাবুর্চির মাসিক বেতন হবে ভাতাসহ প্রায় ২৪ হাজার ৪০০ টাকা।

প্রকল্পে বর্তমানে যে সকল গাড়িচালক এবং বাবুর্চি রয়েছেন, তারা মাস্টার রোলে দৈনিক ভিত্তিতে মাসে সর্বোচ্চ ১৫ হাজার ৫০০ টাকা পেয়ে থাকেন বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে। সম্পাদনা : শাহানুজ্জামান টিটু

 

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]