• প্রচ্ছদ » আমাদের বিশ্ব » এনডিএ জোটের নেতা নির্বাচিত হয়ে মোদী বললেন, জনরায় আমাদের দায়িত্ব বাড়িয়েছে, আগের সরকারগুলো সংখ্যালঘুদের ঠকিয়েছে


এনডিএ জোটের নেতা নির্বাচিত হয়ে মোদী বললেন, জনরায় আমাদের দায়িত্ব বাড়িয়েছে, আগের সরকারগুলো সংখ্যালঘুদের ঠকিয়েছে

আমাদের নতুন সময় : 26/05/2019

আসিফুজ্জামান পৃথিল : ভারতের ক্ষমতাসীন ও নবনির্বাচিত এনডিএ জোটের পার্লামেন্টারি দলের নেতা নির্বাচিত হলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। লোকসভার সেন্ট্রাল হলে নবনির্বাচিত এনডিএ এমপিরা একত্রিত হয়ে মোদীকে নির্বাচিত করেন। এর আগে এনডি’র শরীক দলগুেেলার শীর্ষ পর্যায়ের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। নেতা নির্বাচিত হয়ে মোদী বলেন, যারা ক্ষমতার দম্ভ দেখায় এবং ক্ষমতার জন্য লালায়িত থাকে, ভারতের জনগন সবসময়ই তাদের প্রত্যাখান করে এসেছে। এই বিশাল জনরায় সরকারের দায়িত্ব বাড়িয়ে দিয়েছে বলেও মোদী মনে করেন। এনডিটিভি, ইয়ন নিউজ।

শীর্ষনেতাদের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন দুই বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা মুরলিমনোহর যোশী এবং লাকৃষ্ণ আদভানি। উপস্থিত ছিলেন জনতা দলের নীতিশকুমার, লোক জনশক্তি পার্টির রামবিলাস পাসওয়ান। এছাড়াও শিবসেনা নেতা উদ্ভব ঠাকরেও এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। নেতা নির্বাচিত করে মোদীকে অভিনন্দন জানান শরিক দলের ও বিজেপি নেতারা। এরপর অভিনন্দন জানিয়ে ভাষন দেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। নিজের বক্তব্যে মোদী বলেন, ভারতে বিজেপির আগে যে সরকারগুলো দায়িত্বপালন করেছে তারা সংখ্যালঘুদের ঠকিয়েছে, তাদের সঙ্গে অন্যায় করেছে, বিশ^াসঘাতকতা করেছে। তিনি অভিযোগ করেন, সংখ্যালঘুদের সঠিকভাবে শিক্ষা দেওয়া হয়নি। তাদের ভয়ের পরিবেশ তৈরী করে এর মধ্যে রাখা হয়েছে। এই সুযোগে তাদের ভোটব্যাংক হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে। মোদী আরো বলেন, ‘আমাকে কোন বিশেষ জাত বা সম্প্রদায় ভোট দেয়নি, ভোট দিয়েঠে দেশের জনগন। আমরা মহাত্মা গান্ধী, দিনদয়াল উপধ্যায়, রামকিশান লোহিয়ার আদর্শে  দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবো।’

দেশের নারীদের মাতৃশক্তি অভিহিত করে মোদী বলেন, ‘এই দেশের মাতৃশক্তি আমার রক্ষাকবচ। আগে নারী ভোটদাতাদের সংখ্যা পুরুষদের ভোটদাতাদের থেকে চার-পাঁচ শতাংশ কম থাকতো। এই নির্বাচনে পুরুষ এবং মহিলা ভোটদাতার সংখ্যা প্রায় সমান। আগামী দিনে মহিলারা পুরুষদের ছাড়িয়ে এগিয়ে যাবে। জনতাই ঈশ্বরের রূপ, তা এই নির্বাচনে অনুভব করলাম। স্বাধীনতার পর এই প্রথম এত বেশি ভোট পড়েছে। এই দেশ পরিশ্রমের, আত্মমর্যাদার পুজা করে। এই দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া, রক্ষা করা আমাদের দায়িত্ব। কোটি কোটি মানুষের সংকল্প অনেক বড় কাজ করতে প্রেরণা দেয়। ভারতের জনগণের সংকল্পের প্রমাণ প্রতিভাত হয়েছে নির্বাচনের ফলাফলে। এই নির্বাচনে প্রতিষ্ঠানবিরোধিতা কোনও জায়গা করে নিতে পারেনি। এই নির্বাচন প্রতিষ্ঠানের পক্ষে রায় দিয়েছে। এই নির্বাচন ছিল ইতিবাচক, এই জনরায় সব অর্থেই ইতিবাচক। যদি কোনও ভুল হয়, তবে তা মেনে নিয়ে, শুধরে নিয়ে আগে চলতে হবে। সমতা আর মমতা, এই দুই লক্ষ্যেই কাজ করতে হবে। নির্বাচন বিভাজন তৈরি করে। শিবজ্ঞানে জীবসেবাই আমার লক্ষ্য। এই নির্বঅচন বিভেদের দেওয়াল ভেঙে ফেলেছে।’ সবশেষে জনগনকেই ইশ^র অভিহিত করে বিদায় নেন টানা দ্বিতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নিতে যাওয়া মোদী। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]