ড. মীজানুর রহমান  মনে করেন, ক্ষমতায় যাওয়ার কৌশল হিসাবে মোদী প্রচারাভিযানে ধমের্র ব্যবহার করেছেন

আমাদের নতুন সময় : 26/05/2019

লিয়ন মীর : শুধুমাত্র পুনরায় ক্ষমতায় যেতেই নির্বাচনী কৌশল হিসাবে নরেন্দ্র মোদী নির্বাচনের প্রচারণায় ধর্ম ব্যবহার করেছেন, কিন্তু নির্বাচন পরবর্তী সময়ে বাস্তবে এর কোনো প্রভাব পড়বে না বলে মন্তব্য করেছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান।

তিনি বলেন, এই উপমহাদেশের অনেকগুলো দল শুধুমাত্র নির্বাচনে জয়লাভের জন্য নির্বাচনের আগে ধর্ম ব্যবহার করে থাকে। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে নির্বাচনের আগের এই কমিটমেন্টগুলো ক্ষমতায় গেলে প্রতিপালন করার তাগিদ তাদের মাঝে দেখা যায় না। এটা শুধুই ভোটের রাজনীতির জন্য করা হয়ে থাকে।

তিনি আরো বলেন, নরেন্দ্র মোদী যে কমিটমেন্টগুলো করেছেন সেগুলো আসলে বাস্তবে প্রয়োগযোগ্য নয়। মোদী আসলে হিন্দু সংখ্যাগরিষ্ঠ ভারতে নির্বাচনের আগে হিন্দুত্ববাদের রাজনীতি করেছেন। এটা ছিলো মোদীর পুনরায় প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ার নির্বাচনী  ভোটের কৌশল। ভোট শেষ হওয়ার মধ্য দিয়ে মোদীর সেই কৌশল শেষ হয়েছে। মোদী তার কৌশল পুরোপুরি কাজে লাগাতে পেরেছেন, তিনি বিশাল ব্যবধানে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন। এখানে বলা মোদীর কৌশল শতভাগ সফল, বিরোধীরা ব্যর্থ।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বর্তমান ভারতে হিন্দুত্ববাদ, হিন্দুরাজ-রাজত্ব কোনোটাই প্রয়োগযোগ্য নয়। যেহেতু প্রয়োগযোগ্য নয় সেহেতু মোদীর মতো একজন নেতা এই ব্যর্থ চেষ্টা করবেন না। হিন্দুত্ববাদ ব্যবহার করে মোদী যেটা করতে চেয়েছিলেন তিনি সেটা করতে পেরেছেন। এখন তিনি ভারতের অর্থনৈতিক উন্নয়নের দিকে মনযোগী হবেন বলে আমি ধারণা করি।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]