• প্রচ্ছদ » আমাদের বিশ্ব » বিশ্লেষকরা মনে করছেন, ধর্মীয় উগ্রবাদী বিভাজন ঠেকানোই মোদীর সামনে বড় চ্যালেঞ্জ, ব্যর্থ হলে ভারতের অখ-তা হুমকির মুখে পড়তে পারে


বিশ্লেষকরা মনে করছেন, ধর্মীয় উগ্রবাদী বিভাজন ঠেকানোই মোদীর সামনে বড় চ্যালেঞ্জ, ব্যর্থ হলে ভারতের অখ-তা হুমকির মুখে পড়তে পারে

আমাদের নতুন সময় : 26/05/2019

লিয়ন মীর : হিন্দুত্ববাদ প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দিয়ে নরেন্দ্র মোদী নির্বাচনী প্রচারণায় নেমেছিলেন, ভারতের জনগণ সেটা গ্রহণ করে মোদীকে পুনরায় প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করেছেন। যার ফলে ভারতের বিভিন্ন ধর্মাশ্রিত উগ্র সংগঠন মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারে। বিশেষ করে মোদীর নির্বাচনী ম্যান্ডেড প্রতিষ্ঠিত করতে উঠেপড়ে লাগতে পারে হিন্দু সংগঠনগুলো। এমন পরিস্থিতিতে ভারতে চরম ধর্মীয় উগ্রবাদী বিভাজন তৈরি হওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। এই জাতিগত ধর্মীয় বিভাজন ঠেকানোই মোদীর সামনে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ বলে মনে করছেন আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশ্লেষকরা। বিশ্লেষকরা আশঙ্কা করছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জাতিগত ধর্মীয় বিভাজন ঠেকাতে না পারলে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ভারতের অখ-তা হুমকির মুখে পড়তে পারে।

নরেন্দ্র মোদীর সামনে কি ধরনের চ্যালেঞ্জ রয়েছে জানতে চাইলে সাবেক নির্বাচন কমিশনার ও আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশ্লেষক ব্রি. জে (অব.) সাখাওয়াত হোসেন বলেন, সদ্য সমাপ্ত নির্বাচনের মধ্য দিয়ে ভারত বড় রকমের বিভাজনে প্রবেশ করেছে। এই বিভাজন নিয়ন্ত্রণ করাই নরেন্দ্র মোদীর সামনে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। মোদী যদি এই বিভাজন নিয়ন্ত্রণ করতে না পারেন তাহলে সংখ্যাগুরুর সঙ্গে সংখ্যালঘুর ভয়াবহ সংঘাত তৈরি হবে এবং এই সংঘাত থেকে ভারতে যে কি ধরনের অস্থিরতা সৃষ্টির আশঙ্কা তৈরি হয়েছে সেটা ধারণার বাইরে। এই বিশ্লেষক আশঙ্কা করে বলেন, বিভাজনের ফলে ভারতে যে ভয়াবহ অস্তিরতা সৃষ্টির প্রেক্ষাপট তৈরি হয়েছে, এটা শুধু ভারতের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে না, গোটা উপমহাদেশে ছড়িয়ে পড়বে।

এ প্রসঙ্গে নিরাপত্তা বিশ্লেষক মে. জে. (অব.) মোহাম্মদ আলি শিকদার বলেন, ভোটের যে জোয়ারের মধ্য দিয়ে নরেন্দ্র মোদী বিশাল বিজয় অর্জন করেছেন। তাতে ধর্মীয় উগ্রবাদের শক্ত প্রভাব গেঁথে রয়েছে। এখন মোদীকে এই ধর্মীয় উগ্রবাদ নিয়ন্ত্রণ করতে হবে, কিন্তু এটা সহজ বিষয় নয়। মোদী ধর্মীয় উগ্রবাদ নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যর্থ হলে জাতিগত বিভাজন তৈরি হবে। আর এই জাতিগত বিভাজনের ফলে ভারতের অখ-তা হুমকির মুখে পড়বে বলে তিনি মনে করেন।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, পুনরায় নরেন্দ্র মোদী নির্বাচিত হওয়ার কারণে ভারতে একটা উগ্রবাদী সাম্প্রদায়িক শক্তি শক্তভাবে প্রতিষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। কেননা মোদী একটা সাম্প্রদায়িক শক্তির শিখন্ডি। এখন ভারতজুড়ে সাম্প্রদায়িক ধর্মীয় উগ্রবাদী গোষ্ঠীগুলো মাথাচাড়া দিয়ে উঠবে। যার ফলে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা এবং ধর্মীয় সম্প্রীতি বিনিষ্ট হবে। নরেন্দ্র মোদী যদি এটা নিয়ন্ত্রণ করতে চান তাহলে এটাই হবে মোদীর জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]