• প্রচ্ছদ » » শুধু পুরুষরাই সংসারের ঘানি টানেন!


শুধু পুরুষরাই সংসারের ঘানি টানেন!

আমাদের নতুন সময় : 26/05/2019

আকতার বানু আল্পনা

প্রায়ই কিছু পুরুষকে তাদের পোস্টে বলতে দেখি, শুধু পুরুষরাই নাকি সংসারের ঘানি টেনে টেনে জীবন শেষ করে দিচ্ছেন। আর নারীরা রাতদিন শুধু বসে বসে খায় আর মোটা হয়। আহা! কি আরাম। যারা এ ধরনের কথা বলেন, সেই বেয়াকুফগুলাকে আমার থাপ্পড় মেরে বলতে ইচ্ছা করে, ‘একদিন সারাদিন বউয়ের কাজ করে দ্যাখ। তাহলে বুঝবি, হাউ ধানে হাউ চাল!’
মেয়েদের কাজগুলো পুরুষের তুলনায় মোটেও সহজ নয়। বরং যথেষ্ট কঠিন, খুবই একঘেঁয়ে এবং বিরক্তিকর। অফিসে বসে সারাদিন কাজ করার চেয়ে এক বালতি কাপড় ধুতে অনেক অনেক বেশি পরিশ্রম লাগে। বাচ্চা সামলানো, বাচ্চাদের পড়ানো, ঘরবাড়ি পরিষ্কার, রান্না করা, কাপড় কাচা, বাড়ির সবার দেখাশোনা করা, এগুলো কোনোটাই সহজ কাজ নয়। গ্রামের মহিলারা আরো অনেক অনেক বেশি পরিশ্রম করেন। মেয়েদের কাজগুলোকে গুরুত্বহীন মনে করার কারণ হলো মেয়েদের কাজের বিনিময়ে তারা কোনো টাকা পায় না। বউ, মা, মেয়ে সারাদিন যে কাজগুলো বিনা পয়সায় করে, সেগুলো কাউকে বেতন দিয়ে করিয়ে নিলে পুরুষ বুঝতো, মেয়েদের শ্রমের প্রকৃত দাম কতো। আর চাকরিজীবী মেয়েদের অবস্থা সবচেয়ে শোচনীয়। কারণ তাদের ঘরে এবং অফিসে দ্বিগুণ কাজ করতে হয়।
আমাদের সমাজে মেয়েদের প্রতি যতো নির্যাতন হয়, তার মূলে আছে মেয়েদের প্রতি পুরুষ (ও নারীদের) হীনমানসিকতা ও চরম অশ্রদ্ধা। মেয়েদের প্রতি সমাজের এই হীনমানসিকতা ও চরম অশ্রদ্ধা পোষণের বা প্রকাশের সবচেয়ে বড় কারণ হলো মেয়েদের পুরুষের অন্ন ধ্বংসকারী, গুরুত্বহীন, পুরুষদের উপর নির্ভরশীল, বোঝা, অপ্রয়োজনীয় ইত্যাদি ভাবা।
সংসারে নারী ও পুরুষ উভয়ের কাজ সমান গুরুত্বপূর্ণ। তাই নারীদের কাজের প্রতি হীনমানসিকতার পরিবর্তন দরকার। আর এই পরিবর্তন করতে হলে দরকার নারীর শ্রমকে মর্যাদা দেয়া বা নারীর কাজের পারিশ্রমিক দেয়া। নারীরা বিনা পয়সায় হাসিমুখে সংসারের যাবতীয় কাজ করে বলেই তার কাজকে সহজ ও ফালতু ভাবা হয়। এজন্যই ভারতে বউদের বেতন দেবার আইন পাস করা হয়েছে। আমার মনে হয়, বাংলাদেশেও অতি দ্রæত সেটা চালু করা উচিত। এর ফলে পরিবারে, সমাজে নারীর গুরুত্ব বাড়বে, নারীর প্রতি সবার শ্রদ্ধা বাড়বে এবং নারীর প্রতি সহিংসতা কমবে। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]