রাজশাহীবাসীর দাবি মেনে নিয়েছে সরকারকারা প্রশিক্ষণ একাডেমি পদ্মার চরে হচ্ছে না

আমাদের নতুন সময় : 27/05/2019

সালেহ্ বিপ্লব : একাডেমি  নির্মাণের জন্য রাজশাহী শহর সংলগ্ন শ্রীরামপুর এলাকায় ১শ একর জমি অধিগ্রহণ করেছে কারা কর্তৃপক্ষ। রাজশাহীর মানুষ চরের জমিতে একাডেমি বানানোর এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানায়।

পরিবেশবাদী আন্দোলনের পক্ষ থেকে বলা হয়, প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে নদীর গতিপথ পরিবর্তিত হতে পারে। প্রতিবছর বন্যার আশংকা বেড়ে যাবে, শহররক্ষা বাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। সব মিলিয়ে পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতি হবে। আর নিরাপত্তাজনিত কারণে জনসাধারণের চলাচলেও বিঘœ ঘটবে। এসব কারণ উল্লেখ করে প্রকল্পের স্থান সরিয়ে নেয়ার দাবি জানান পরিবেশবাদীরা। রাজশাহীর চিকিৎসক, শিক্ষক, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার প্রতিনিধিরা তাদের সাথে একাত্মতা জানান। তারা পদ্মার চরে কারা প্রশিক্ষণ একাডেমি নির্মাণের উদ্যোগ বন্ধসহ পরিবেশ রক্ষার জন্য ৭ দফা দাবি জানিয়ে জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি দেন গত সপ্তাহে।

রাজশাহীর বিভিন্ন সংগঠনও পরিবেশবাদীদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে মাঠে নামে। তারা কারা প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের জায়গা অন্যত্র নির্ধারণ, ভবিষ্যতে পদ্মা নদীর চরে অবকাঠামো নির্মাণ রোধ করা, বাঁধ ও নদী দখলমুক্ত করা এবং বাঁধের উপর যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপের দাবি জানান। সেইসাথে রাজশাহীবাসীর বিনোদন ও খেলাধুলার জন্য খোলা জায়গা সংরক্ষণ, বাঁধসংলগ্ন এলাকায় বনায়ন, এবং পদ্মা নদী ও আশপাশের অংশকে ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ হিসেবে ঘোষণা ও সংরক্ষণের উদ্যোগ নেয়ার দাবি জানানো হয়।

রাজশাহীবাসীর এই আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে সরকার পদ্মার চরে একাডেমি নির্মাণের বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করেছে। শনিবার রাতে রাজশাহীর অন্যতম সংসদ সদস্য ও  পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম ফেসবুকে জানান, কারা প্রশিক্ষণ একাডেমি রাজশাহীতেই হবে। তবে পদ্মার চরে নয়।

প্রতিমন্ত্রী লিখেছেন, ‘রাজশাহীতে যারা বেড়ে উঠেছেন তাদের পদ্মা নদীর সাথে একাটা আত্মার সম্পর্ক আছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকারের অধীন কোন প্রতিষ্ঠান জনগণের চাওয়ার বিপরীতে কোন সিদ্ধান্ত নেবে না। একই সাথে এখানকার প্রতিটি রাষ্ট্রীয় স্থাপনাগুলোও আমাদের অনেক গর্বের। প্রয়োজনে তাদের দেখভাল করাও সকলের কর্তব্য। নতুন কিছু করতে চাইলে তার জন্য সঠিক জায়গা খুঁজে দেয়া আমাদের জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্ব। কারা প্রশিক্ষণ একাডেমি রাজশাহীতেই হবে, নতুন কোন স্থানে। মন্ত্রণালয়ের সম্মানিত সচিবের সাথে আমার কথা হয়েছে। প্রয়োজনীয় পরামর্শ তাকে আমি দিয়েছি। ইনশাআল্লাহ সেই অনুযায়ী কাজ হবে।’

প্রতিমন্ত্রীর এই স্ট্যাটাসে রাজশাহীর মানুষ আনন্দিত। ফেসবুকে তারা অভিনন্দন জানিয়েছেন সরকারের সিদ্ধান্তকে। ধন্যবাদ জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীকে।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান
বার্তা ও বাণিজ্য বিভাগ ঃ ১৯/৩ বীর উত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়ক , পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
ছাপাখানা ঃ কাগজ প্রেস ২২/এ কুনিপাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকা ,ঢাকা -১২০৮
ই- মেইল : [email protected]